অর্পিত সম্পত্তি আত্মসাতের চেষ্টায় এমপি স্বপনের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন

ওকালতনামা ও আম-মোক্তারনামায় জাল স্বাক্ষর করে সরকারি অর্পিত সম্পত্তি আত্মসাতের চেষ্টা মামলায় সিরাজগঞ্জ-৬ (শাহজাদপুর) আসনের সংসদ সদস্য হাসিবুর রহমান স্বপনসহ ২ জনের নামে চার্জ গঠন হয়েছে।

বুধবার দুপুরে শাহজাদপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আবু খান শাহীন কনকের চৌকি আদালতে আসামিদের উপস্থিতিতে এ চার্জ গঠন করা হয়।

অপর আসামি হলেন শাহজাদপুর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের মহরার আবদুর রশিদ।

এ বিষয়ে শাহজাদপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বেঞ্চ সহকারী শফিকুল ইসলাম বলেন, আসামিদ্বয়ের উপস্থিতিতে এ দিন চার্জ গঠন হয়েছে।

এমপি স্বপনের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আবদুল হাই বলেন, শাহজাদপুর উপজেলার পৌর শহরের পুকুরপাড় মহল্লার একটি সরকারি অর্পিত সম্পত্তি আত্মসাতের জন্য ওকালতনামা ও আম-মোক্তারনামায় জাল স্বাক্ষর করার অভিযোগ এনে ২০১৮ সালের ২৫ জুলাই সিরাজগঞ্জ অর্পিত সম্পত্তি ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিজ্ঞ বিচারক শাহজাদপুর সিনিয়র সহকারী জজ মো. তোফাজ্জল হোসেন বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় শাহজাদপুর সাবরেজিস্ট্রি অফিসের দলিল লেখক মো. আবদুর রশিদ ও শাহজাদপুর উপজেলার দ্বারিয়াপুর মহল্লার মৃত আতাউর রহমানের ছেলে সিরাজগঞ্জ-৬ (শাহজাদপুর) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য হাসিবুর রহমান স্বপনকে বিবাদী করা হয়।

তিনি আরও বলেন, আমার মক্কেল সম্পূর্ণ নিরপরাধ। সাক্ষী-প্রমাণের মাধ্যমে তারা অবশ্যই এ মামলা থেকে খালাস পেয়ে যাবেন।

এ বিষয়ে সংসদ সদস্য হাসিবুর রহমান স্বপন বলেন, আমি কোনো অন্যায় বা জাল স্বাক্ষর করিনি। অন্যায়ভাবে আমাকে ফাঁসানো হয়েছে। আশা করি সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে আমি নির্দোষ প্রমাণিত হয়ে এ মামলা থেকে খালাস পেয়ে যাব।

এদিকে এ চার্জ গঠনকে কেন্দ্র করে শাহজাদপুর চৌকি আদালত চত্বরে কোর্ট পুলিশ ও শাহজাদপুর থানা পুলিশ বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করে।

সিরাজগঞ্জ-৬ (শাহজাদপুর) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য হাসিবুর রহমান স্বপন পুলিশের বিশেষ নিরাপত্তায় পুলিশের একটি পিকআপে করে আদালত চত্বরে আসেন। এরপর কাজ শেষে তিনি আবার ওই পিকআপে করে আদালত চত্বর ত্যাগ করেন। এ সময় সেখানে শাহজাদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সব অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র-যুগান্তর.

‘এরপর কি? আমি?’

শাহজাদপুুরে ছাত্র-ছাত্রীরা হাতে লেখা প্ল্যাকার্ড এবং চোখে কালো কাপড় বেধে ধর্ষণ বিরোধী মানববন্ধন ও “ধর্ষকের ফাসি চাই” এই স্লোগান সামনে রেখে র‌্যালি করেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। আজ মঙ্গলবার (৬অক্টোবর) শাহজাদপুর সরকারি কলেজ থেকে র‌্যালী বের করে শাহজাদপুর উপজেলা পরিষদের সামনে মানববন্ধন করে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। সাধারণ শিক্ষার্থীদের নেতৃত্বে র‌্যালিটি পৌর শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে শাহজাদপুর সরকারি কলেজে শেষ হয়।

নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন ছাত্রীদের হাতে প্রতিবাদের প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল, ‘এরপর কি? আমি?’

মানববন্ধন ও র‌্যালিতে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীরা বলেন, ধর্ষনের মত জঘন্যতম আর ন্যক্কারজনক একটা অপরাধের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন ও র‌্যালী করতে হবে এটি জাতির জন্য লজ্জাজনক বিষয়। দেশব্যাপী যেন ধর্ষণের মহোৎসব শুরু হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়াতে একটাই খবর ধর্ষণ আর ধর্ষণ। মিডিয়াতে ভাইরাল হওয়া বিষয় গুলো নিয়েই আমরা যত তোলপাড় করি কিন্তু অগোচরে রয়ে যায় আরো বহু ধর্ষণের ঘটনা। ধর্ষকের শাস্তি যেন মৃত্যুদণ্ড নিশ্চিত করে দৃষ্টান্তস্বরূপ তা কার্যকর করা হয়, যাতে ভবিষ্যতে এমন জঘন্যতম অপরাধ করার সাহস কেউ না পায়।

শাহজাদপুর তালগাছী হাটে নিষিদ্ধ কারেন্ট জালের জমজমাট ব্যবসা

প্রশাসনের নাকের ডগায় শাহজাদপুর উপজেলার গাড়াদহ ইউনিয়নের তালগাছী হাটে নিষিদ্ধ কারেন্ট জালের জমজমাট ব্যবসা চলছে। ফলে এলাকা থেকে দেশীয় প্রজাতির মাছ কারেন্ট জালে ধরা পড়ছে। এতে একদিকে যেমন দেশীয় প্রজাতির মাছ বিলুপ্ত হচ্ছে, অন্যদিকে মাছের প্রজনন ক্ষমতা হ্রাস পাচ্ছে।

সয়লাব হয়ে পড়েছে নিষিদ্ধ কারেন্ট জালে তালগাছী হাট। প্রশাসনের নাকের ডগায় আইনের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে প্রকাশে এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ীরা নিষিদ্ধ কারেন্ট জালের জমজমাট ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। রবিবার(৪সেপ্টেম্বর) সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় উপজেলার তালগাছী হাটের গরু হাটার পাশে কারেন্ট জালের বিশাল পসরা সাজিয়ে বসেছেন ব্যবসায়ীরা।

তথ্য অনুসন্ধানে জানা যায়, নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল এর ফলে উপজেলার খালবিলে নদীনালার ছোট প্রজাতির মাছ বিলুপ্ত হতে চলেছে। কারেন্ট জালে সব ধরনে মাছ বেশী ধরা পড়ায় উপজেলার মৎস্য শিকারীরা এ জাল ক্রয় করছে বলে জানাগেছে। বর্ষার শুরু থেকে এ জাল দিয়ে মাছ ধরা শুরু করে মৎস্য শিকারীরা। এ জাল ব্যবহার করে জেলেরা বিভিন্ন নদী ও খাল-বিলে দেশি প্রজাতির ডিমওয়ালা ও পোনা মাছ নিধন করছে।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের গাফিলতার কারনে পুরপুরি বাস্তবায়ন হচ্ছে না মৎস সম্পদ রক্ষা ও সংরক্ষণ আইন। নিষেধাজ্ঞা থাকলেও কতিপয় কর্মকর্তা, কর্মচারীর নজদারীর অভাবে অবাধে এই নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল বিক্রি হচ্ছে হাট বাজারে। ফলে বিভিন্ন জলাশয় থেকে বিলুপ্ত হচ্ছে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ। ২০০২ সালের সংশোধিত মৎস্য সংরক্ষণ আইনে কারেন্ট জাল উৎপাদন, পরিবহন, রাজারজাতকরণ, সংরক্ষণ ও ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়। এ আইনটি মানছে না এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ীরা। প্রশাসনের নজরদারীর অভাবে নিষিদ্ধ এ কারেন্ট জালের ব্যবসা চলছে বলে অভিযোগ বিজ্ঞমহলের।

এ বিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিদ মাহমুদ খান জানান, এ ব্যাপারে সবকিছু জেনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

এ বিষয়ে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সাথী রানী নিয়োগী বলেন, আপনাদের কাছে থেকে কারেন্ট জালের বিষয়ে জানলাম। উপজেলা মৎস্য অফিস খুব দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহন করবে বলেও জানান উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা।

এ ব্যাপারে শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা বলেন করেন্ট জাল বিক্রয় এবং পরিবহন সম্পূর্ণ নিসিদ্ধ। তালগাছী হাটে যে কারেন্ট জাল বিক্রি হচ্ছে তা আমাদের জানা ছিল না, আপনাদের মাধ্যমে জানতে পেলাম। আমরা উপজেলা মৎস অফিসকে সাথে নিয়ে অভিযান পরিচালনা করবো এবং প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

শাহজাদপুরে বিএনপি’র হয়ে মেয়র পদে নির্বাচনের ঘোষণা দিলেন যুবদল নেতা সজল

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর পৌরসভার শেরখালীতে গতকাল রোববার বিকেলে এলাকাবাসীর সাথে মতবিনিময় করে আগামী পৌর নির্বাচনে বিএনপি’র প্রার্থী হয়ে মেয়র পদে লড়ার ঘোষণা দিলেন, পৌর বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ও পৌর যুবদলের আহ্বায়ক মাহমুদুল হাসান সজল।

এসময় আগামী পৌর নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী সজল নিজেকে পৌর মেয়র পদে শক্তিশালী প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করে বলেন, জনগণের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠা এবং গণতন্ত্রকে পুনঃউদ্ধার করতে জনসাধারণের সহযোগিতা প্রয়োজন। এজন্য আগামী নির্বাচনে অন্তত শেরখালী দ্বাবাড়িয়া কেন্দ্রে ভোট ডাকাতির সুযোগ দেয়া হবেনা।

জনগণকে সাথে নিয়ে ভোট ডাকাতি প্রতিহত করার ঘোষণা দেন সজল। সেই সাথে তিনি নির্বাচিত হলে পৌরবাসীর উন্নয়নে নিজেকে বিলিয়ে দেয়ার কথা বলেন বিএনপি’র মনোনয়ন প্রত্যাশী মোঃ মাহমুদুল হাসান সজল।

অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আইসিউতে

হঠাৎ শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল ও সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট মাহবুবে আলমকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের (সিএমএইচ) আইসিইউতে নেয়া হয়েছে।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, তার শারীরিক অবস্থা বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত ভালোই ছিল। কিন্তু শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকালে অবস্থার অবনতি হলে আইসিইউতে নেয়া হয়।

তিনি আরো জানান, শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) সকালে জ্বর শুরু হয়। এ সময় চিকিৎসকরা তাকে হাসপাতালে ভর্তির পরামর্শ দেন। পরে ওই দিনই অ্যাটর্নি জেনারেল সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি হন। করোনা পজেটিভ ও বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় ভুগছেন তিনি।

চেক লেনদেনের নতুন নিয়ম

চেকদাতা ও গ্রহীতার মধ্যে লেনদেন সম্পর্কিত কোনো বৈধ চুক্তি প্রমাণ করতে না পারলেও এখন থেকে চেক ডিজঅনার হলেই সাজা হবে না মর্মে রায় দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) এ সংক্রান্ত একটি পূর্ণাঙ্গ রায় প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ থেকে প্রকাশ হয়েছে।

এ রায়ের ফলে এখন থেকে বাদীকেই প্রমাণ করতে হবে কী চুক্তিমূলে বা বিবেচনায় চেকদাতা চেক ইস্যু করেছিলেন এবং সেই চুক্তিটি ব্যর্থ হয়নি, যার কারণেই বিবাদীর কাছে বাদীর পাওনা বলবৎ রয়েছে।

জানা গেছে, আগে চেক ডিজঅনার হলে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই চেকদাতার সাজা হতো। চেকমূলে চেকগ্রহীতার টাকা পাওয়ার কোনো কারণ আছে কি না, সেটি দেখার বাধ্যবাধকতা বা দিক নির্দেশনা ছিল না। এখন থেকে চেকগ্রহীতাকে প্রমাণ করতে হবে যে, চেকদাতা ও চেকগ্রহীতার মধ্যে লেনদেন সম্পর্কিত কোনো বৈধ চুক্তি ছিল কি না। সে চুক্তির শর্ত তিনি পূরণ করেছেন কিনা। তাহলেই কেবল চেক ডিজঅনার মামলায় সাজা হবে।

গত ১৮ ফেব্রুয়ারি এ সংক্রান্ত এক আপিল নিষ্পত্তি করে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ এ রায় দেন। যার পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশিত হয়।

আপিল বিভাগের এ রায়ের ফলে চেকদাতারা তাদের নির্দোষ প্রমাণের একটা সুযোগ পেল। এছাড়া এ রায়ের ফলে চেক সংক্রান্ত মামলায় বিচার প্রার্থীদের ভোগান্তি ও হয়রানি কমবে বলে আশা করা হচ্ছে।

শাহজাদপুরসহ সিরাজগঞ্জের ৩ থানার ওসিকে বদলি

সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর ও চৌহালী উপজেলা এবং এনায়েতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত তিন পুলিশ কর্মকর্তাকে (ওসি)’র বদলি করা হয়েছে।

বদলির আদেশ প্রাপ্ত কর্মকর্তারা হলেন, শাহজাদপুর ওসি মো. আতাউর রহমান, এনায়েতপুরের ওসি মোল্লাহ মাসুদ রানা এবং চৌহালী থানার ওসি রাশেদুল ইসলাম বিশ্বাস।

এরমধ্যে এনায়েতপুর ও শাহজাদপুর থানায় দায়িত্বরত দুই ওসিকে অদল-বদল করা হয়েছে। আর চৌহালীর রাশেদুল ইসলাম বিশ্বাসকে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সংযুক্ত করা হয়েছে।

পুলিশ সুপার হাসিবুল আলম স্বাক্ষরিত এক আদেশে তাদের ৩ জনকে জেলার ভেতরেই বদলি করা হয়। বুধবার বিকেলে এ আদেশ স্বাক্ষরিত হলেও বৃহস্পতিবার তাদের বদলির বিষয়টি কার্যকর হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

বদলির বিষয়টি নিশ্চিত করে বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলিশ সুপার হাসিবুল আলম বলেন, ‘যেহেতু তিনজনই দায়িত্বপালন কালে নিজ নিজ কর্মস্থলে কিছুটা সমস্যা তৈরি করেছেন, তাই আপাতত তাদের জেলার মধ্যেই বদলি করা হলো। এ আদেশ পুলিশের প্রতি স্থানীয় জনসাধারণের অবিচল আস্থা তৈরিতে রুটিন বদলি।’

অভিযোগ আছে, সম্প্রতি বাঘাবাড়ি নৌবন্দরের ইজারাদার আব্দুস সালামের সঙ্গে দ্বন্দ্বের জেরে অনৈতিক প্রভাবে দুষ্ট হয়ে শ্রমিক সাদ্দাম হোসেনকে মারধর করে থানায় ধরে আনেন শাহজাদপুরে ওসি আতাউর রহমান। এর প্রতিবাদে ওসি আতাউর রহমানের অপসারণের দাবিতে উত্তরবঙ্গ ট্যাঙ্ক লরি শ্রমিক নেতারা বাঘাবাড়ি নৌবন্দর ও পাবনা-ঢাকা মহাসড়কে বিক্ষোভ করেন।

অন্যদিকে, গ্রামীণ সংঘাতের বিষয় নিয়ে শাহজাদপুরে গত ৪ মাসে বেশ কিছু সংঘর্ষের ঘটনায় ৫ নিরীহ গ্রামবাসী নিহত হন। ওইসব ঘটনায় একাধিক মামলা হলেও প্রকৃত আসামিরা এখনও অধরা। ওইসব ঘটনায় ওসি আতাউর রহমানের পুলিশিং দক্ষতা নিয়েও বিভিন্ন ফোরামে বার বার আলোচনা হয়।

অপরদিকে, এনায়েতপুর থানার ওসি মোল্লাহ মাসুদ রানার বিরুদ্ধে বিধিভঙ্গ করে করোনাকালীন সময়ে সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ উঠে। বিভাগীয় তদন্ত হলেও করোনা আক্রান্ত হওয়ায় তার শাস্তির বিষয়টি মানবিক ও শিথিল করে দেখা হয়।

এছাড়া, চৌহালীর চরাঞ্চলে অবাধে মাদক কেনাবেচার বিষয়ে সম্প্রতি স্থানীয় এমপির কাছে পুলিশের ঢিলেঢালা অভিযানের বিষয়ে আক্ষেপ করেন স্থানীয়রা। মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান নিয়েও স্থানীয় এমপির বিরাগভাজন হন ওসি রাশেদুল ইসলাম বিশ্বাস।

এছাড়া, করোনাকালীন সময়ে নদী ভাঙনের অজুহাতে স্থানীয় দু’ইউপি চেয়ারম্যান সরকারি রাস্তায় সওজের শতাধিক গাছ কাটেন। গাছ চুরির ঘটনায় তদন্তের নামে গড়িমসি ও কালক্ষেপণ করেন ওসি। এসব একাধিক ঘটনায় রাশেদুল ইসলাম বিশ্বাসের দক্ষতা ও যোগ্যতা নিয়ে স্থানীয়ভাবে নানা প্রশ্ন দেখা দেয়।

তথ্যসুত্রঃ বাংলা ট্রিবিউন

১ সেপ্টেম্বর থেকে আগের ভাড়ায় গণপরিবহন: ওবায়দুল কাদের

আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে আগের বাড়ায় গণপরিবহন চলবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তবে এক্ষেত্রে আসনের অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন ও দাঁড়িয়ে যাত্রী নেওয়া যাবে না বলেও জানান তিনি।

শনিবার (২৯ আগস্ট) ঢাকা জোনের বিআরটিএ ও বিআরটিসির কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় সেতুমন্ত্রী এ কথা জানান।

ওবায়দুল কাদের সংসদ ভবন এলাকায় তার সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ সভায় যুক্ত হন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, সার্বিক পরিস্থিতি ও জনস্বার্থ বিবেচনা করে সরকার আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে গণপরিবহন আগের নির্ধারিত বাড়ায় ফিরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। তবে এক্ষেত্রে কয়েকটি শর্ত সংশ্লিষ্টদের প্রতিপালন করতে হবে। গণপরিবহনের যাত্রী, চালক, সুপারভাইজার, চালকের সহকারী, টিকিট বিক্রয়কারীসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে অবশ্যই মাস্ক পরিধান করতে হবে। হাত ধোয়ার জন্য পর্যাপ্ত সাবান পানি অথবা হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রাখতে হবে। আসন সংখ্যার অতিরিক্ত কোনো যাত্রী পরিবহন করা যাবে না। অর্থাৎ যত সিট তত যাত্রী পরিবহন নীতি কার্যকর হবে। দাঁড়িয়ে যাত্রী পরিবহন করা যাবে না। প্রতিটি ট্রিপের শুরু ও শেষে যানবাহন জীবাণুমুক্ত করতে হবে।

সেতুমন্ত্রী এসময় নিয়ম ও শর্ত মেনে পরিবহন চালানোর জন্য পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের আহ্বান জানান। পাশাপাশি যাত্রীসাধারণকেও মাস্ক পরিধানসহ নিজের সুরক্ষায় সচেতন থাকার আহ্বান জানান।

ওবায়দুল কাদের নতুন সিদ্ধান্তের বিষয়টি বিজ্ঞপ্তি আকারে জানানোর পাশাপাশি আইন অমান্যকারী যানবাহনের বিরুদ্ধে নিয়মিত কার্যক্রম জোরদার করতে বিআরটিএকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেন। একইসঙ্গে তিনি হাইওয়ে পুলিশ, জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশসহ সংশ্লিষ্টদের এ বিষয়টি কঠোরভাবে প্রতিপালনের জন্য অনুরোধ করেন।

তথ্য সুত্রঃ বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

করোনামুক্ত হলেন গরীবের ডাক্তার বিউটি পারভীন

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে গরীবের ডাক্তার বলে খ্যাত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপসহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার বিউটি পারভীন করোনা হতে মুক্ত হয়েছেন। নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে গিয়ে নিজেই করোনায় আক্রান্ত হন।

তাড়াশ হাসপাতাল সুত্রে জানা যায় গত (৬ইআগষ্ট) বিউটি পারভীনের শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে সিরাজগঞ্জ পিসিআর ল্যাবে পাঠালে (৮আগষ্ট) করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে সেই থেকে তাড়াশ হাসপাতালে আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন ।বিউটি পারভীন তাড়াশ হাসপাতালে ১৪ দিন আইসোলেশনে চিকিৎসারত থাকা অবস্থায় গত ২০-০৮-২০২০ইং তারিখে আবার নমুনা সংগ্রহ করে সিরাজগঞ্জ মুনসুর আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পি সিআর ল্যাবে পাঠালে আজ ২৩-৮-২০২০ইং তারিখে তার শরীরে করোনা নেগিটিভ পাওয়া যায়।

তাড়াশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপসহকারী কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসার বিউটি পারভীন। শুধু স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নয়, করোনার ঝুঁকি উপেক্ষা করে সকাল থেকে গভীর রাতে মানুষের বাড়ি বাড়ি বাড়ি গিয়ে চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন।

মহামারী করোনায় সময় সামান্য সময়ের জন্য নিজের কাজ কে অবহেলা করেননি । নিজ দায়িত্ববোধ থেকেই তিনি গরীর দুঃখী অসহায় মানুষের সেবা করেছেন ।
এ বিষয়ে তাড়াশের সুশীল সমাজের প্রতিনিধি প্রবীন ও সাংবাদিক আব্দুর রাজ্জাক রাজু জানান বিউটি পারভীন তাড়াশ উপজেলার অসহায় দুঃস্থ্য মানুষের চিকিৎসা সেবা দিয়ে থাকেন।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপসহকারী কমিউনিটি মেডিক্যাল বিউটি পারভীন বলেন আমি অনেক দিন যাবত করোনায় আক্রান্ত হয়ে আইসোলশনে চিকিৎসারত ছিলাম। আমি আল্লাহর রহমতে আপনাদের দোওয়া ও ভালবাসায় করোনা হতে মুক্ত হয়েছি । আমি আবার দরিদ্র অসহায় শ্রমজীবী, দিনমুজুর মানুষের সেবায় কাজ করতে চাই।

প্রায় দেড়যুগ পর শাহজাদপুর ছাত্র দলের আহবায়ক কমিটি গঠন

প্রায় দেড়যুগ পরে বাংলাদেশ জাতীয়বাদী ছাত্রদল শাহজাদপুর উপজেলা শাখার আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে।

আজ শনিবার (২২আগষ্ট) সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মোহাম্মদ জুনায়েদ হোসেন সবুজ ও সাধারণ সম্পাদক সেরাজুল ইসলাম সেরাজ স্বাক্ষর করে এ আহবায়ক কমিটি অনুমোদন দিয়েছেন।

শাহজাদপুর উপজেলা শাখা ছাত্রদলের আহ্বায়ক করা হয়েছে মোঃ আল মামুন হোসেন জুয়েল কে ও ১নং যুগ্ন আহ্বায়ক করা হয়েছে হোসাইন আলীকে।এ কমিটতে মোট ১০জনকে যুগ্ম আহবায়ক করা হয়েছে। সদস্য সচিব করা হয়েছে মোঃ মাজহারুল ইসলাম (মাজাকে) এই আহবায়ক কমিটিতে সাধারণ সদস্য হিসেবে আছে ৯জনের নাম।

নবগঠিত কমিটিকে আগামী ৬০ দিনের মধ্যে তাদের অধীনস্থ ইউনিট কমিটি গঠন করে সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্রদল বরাবর জমা দেওয়ার নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।