শাহজাদপুরে করোনার টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন

দেশব্যাপী কোভিড-১৯ করোনা ভ্যাকসিনের কর্যক্রম শুরুর সাথে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরেও করোনা ভাইরাসের টিকাদান কর্মসূচির উদ্ধোধন করা হয়।

রবিবার(৭ফেব্রুয়ারি) সকালে শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনুষ্ঠানিকভাবে কোভিড-১৯ টিকাদান শুরু হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: আমিনুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, শাহজাদপুর উপজেলা চেয়ারম্যান প্রফেসর আজাদ রহমান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এলিজা খান, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম, থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিদ মাহমুদ খান, মেডিকেল অফিসার নাজনীন মমতাজ প্রমূখ।

এ সময় শাহজাদপুর উপজেলা চেয়ারম্যান প্রফেসর আজাদ রহমান টিকাদান কার্য়ক্রমের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন। শাহজাদপুরে প্রথম টিকা গ্রহণ করেন ডা: আজমল হোসেন।

ডা: আমিনুল ইসলাম উপস্থিত অতিথি ও সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, সারা বাংলাদেশের ন্যায় আমরাও করোনা টিকাদান কার্যক্রম শুরু করেছি। অনলাইন নিবন্ধনের মাধ্যমে ১৯ ক্যাটাকরিতে এ টিকাদান কর্যক্রম চলবে। প্রথম ধাপে শাহজাদপুর উপজেলার জন্য সর্বমোট ১৭৩৯ টি ভায়েল কোভিড-১৯ টিকা এসে পৌছেছে। যা শাহজাদপুরের ১৭৩৯০ জনের শরীরে প্রয়োগ করা হবে।

তিনি আরও জানান, রবিবার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্থাপিত ৩টি বুথের মাধ্যমে ৪৪ জনের শরীরে কোভিড-১৯ টিকা প্রয়োগ হয়েছে। কোভিড-১৯ করোনা ভ্যাকসিনে কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। যারা এই টিকা নিতে আগ্রহী তাদেরকে www.surokkha.gov.bd এই ওয়েব সাইডে নিবন্ধন করার আহবান জানান।

শাহজাদপুরের প্রবীন চিকিৎসক ডাঃ আবু সাঈদ আর নেই

প্রবীন চিকিৎসক ডাঃ আবু সাঈদ

শাহজাদপুরের কৃতি সন্তান সুনামধন্য ডাঃ আবু সাঈদ (৯৭) দ্বারিয়াপুর নিবাসী ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৬ জানুয়ারী রাত্রি ১০.৩০ মিনিটের সময় ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মরহুমের প্রথম নামাজে জানাজা আজ বাদ জোহর শাহজাদপুর সরকারি কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হয় এবং বাদ আসর তার নিজ ইউনিয়নের চর- নরিনার কবরস্থান মাঠে দ্বিতীয় নামাজে জানাজা শেষে চর-নরিনা কবরস্থানে বাবা মায়ের কবরে পাশে সমাহিত করা করা হবে।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছেন শাহজাদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি বিমল কুমার কুন্ডু, সাধারণ সম্পদাক শফিকুজ্জামান শফি, শাহজাদপুর সংবাদ ডটকমের সম্পাদক আবুল বাশার ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ শরিফ সরকার, সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য রুমানা মাহমুদ, বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চু, সাংগঠনিক সম্পদাক মীর্জা মোস্তফা জামান,শাহজাদপুর উপজেলা বিএনপি’র আহবায়ক প্রফেসর ড. এমএ মুহিত, সদস্য সচিব আলহাজ্ব এ্যাড.আবুল কাশেম, যুগ্ম-আহবায়ক ইকবাল হোসেন হিরু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস-চেয়ারম্যন মুস্তাক আহমেদ। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে এবং এক মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

শাহজাদপুরে গবাদীপশুর কৃমিমুক্তকরণ কার্যক্রম কর্মসুচির উদ্বোধন

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের বাস্তবায়নে, প্রাণিসম্পদ ও ডেইরী উন্নয়ন প্রকল্প (এলডিডিপি), প্রাণিসম্পদ দপ্তর বাংলাদেশ এর সহয়তায় মঙ্গলবার হাবিবুল্লাহনগর ইউনিয়নের ডায়া ঈদগাহ ময়দানে বিনামুল্যে গবাদীপশুর কৃমিমুক্তকরণ কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শাহজাদপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রফেসর আজাদ রহমান।

সিরাজগঞ্জ জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা আলহাজ ডা. আখতারুজ্জামান ভুঁইয়ার সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন শাহজাদপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মিজানুর রহমান। আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা প্রাণিসম্পদ সম্প্রসারণ কর্মকর্তা (এলডিডিপি) ডা. সোনালী খাতুন, উপসহকারী প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা আনিসুর রহমান প্রমুখ।

দুঃখী মানুষের কথা....


সকলের সহযোগীতায় রাজমিস্ত্রি ফরিদ বাঁচতে চায়!

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার পোতাজিয়া ইউনিয়নের পোতাজিয়া সরকারপাড়া মহল্লার সাত্তার প্রামাণিকের ছেলে রাজমিস্ত্রি ফরিদ প্রামাণিক (৩৫) এর দিন ভালোই চলছিলো। কিন্তু নিয়তির নির্মম পরিহাসে প্রায় ৫ বছর পূর্বে পৌর এলাকার দরগাহপাড়া গ্রামের জনৈক মানিকের বিল্ডিংয়ের ৫ তলায় রাজমিস্ত্রির কাজ করার সময় বিদ্যুৎস্পৃৃষ্ট হয়ে কোনমতে প্রাণে বেঁচে গেলেও তাকে হারাতে হয় বা হাত, বা পায়ের সবগুলো আঙ্গুল ও ডান পায়ের ৩ টি আঙ্গুল। পোতাজিয়া সরকারপাড়া মহল্লার আজাদের বাড়িতে আশ্রিত ফরিদ এলাকাবাসীর সহযোগীতায় তার স্ত্রী, ১ ছেলে ১ মেয়ে নিয়ে খেয়ে না খেয়ে মানবেতর দিনযাপন করে আসছে। দুর্র্ঘটনার পর থেকেই অসহায় ফরিদকে দৈনিক আড়াই’শ টাকার ওষুধ খেতে হচ্ছে এবং প্রতিমাসে নিয়মিত একবার ঢাকায় চেকআপের জন্য যেতে হচ্ছে। পরিবারের ভরণপোষণের ব্যয় বহনই যেখানে ফরিদের জন্য অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে, সেখানে অর্থাভাবে ঠিকমতো চিকিৎসা করতে না পারায় বর্তমানে তার দুটি পা ক্রমশঃ ফুলে যাচ্ছে এবং বা পায়ে পঁচন ধরেছে। এজন্য, বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক তার পঁচন ধরা বা পায়ে অপারেশনের পরামর্শ দিয়েছেন। জরুরী ভিত্তিতে ফরিদের পা অপারেশন করা না গেলে পঁচন থেকে সে ক্যান্সারে আক্রান্ত হতে পারে। এমনকি পুরো পা কেটে ফেলা হতে পারে বলে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক জানিয়েছেন। অর্থাভাবে অসহায় ফরিদ অপারেশনসহ চিকিৎসা ব্যয় নির্বাহ করতে অক্ষম হওয়ায় তিনি দেশ বিদেশের বিত্তবান ও সুহৃদের নিকট সাহায্যের মানবিক আবেদন জানিয়েছে। ফরিদের ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন ০১৯৩৯-০৪৮১৫৬ (বিকাশ পার্সোনাল) নাম্বারে সে আর্থিক সহযোগীতার দাবী জানিয়েছে। সকলের সহযোগীতায় সে ফরিদ বাঁচতে চায়!

জাঙ্গিয়া ব্যবহারে অসতর্ক হলে হারাতে পারেন পুরুষত্ব

চিকিৎসকদের মতে প্রত্যেকদিন নিয়ম করে অন্তর্বাস বদলানো উচিত। ১২ ঘণ্টা অন্তর দু-বার অন্তর্বাস বদল করা উচিত বলে জানাচ্ছেন চিকিৎসকরা। ছেলে-মেয়ে নির্বিশেষে এই নিয়ম মেনে চলা আবশ্যক

শীতের দিনে অন্তর্বাস বদলানোর প্রবণতা থাকে না অনেকের মধ্যে। এক সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে ২ হাজার জনের মধ্যে প্রায় ৪৫ শতাংশের অন্তর্বাস বদল না করার প্রবণতা রয়েছে। মনে রাখবেন অন্তর্বাস নিয়ে অসতর্কতা ঘোর বিপদ ডেকে আনতে পারে আপনার জীবনে।

গভেষনায আরও দেখা গেছে, ছেলেদের অন্তর্বাস নিয়ে সাধারণত খুব বেশি চর্চা হয় না। কেমন জাঙ্গিয়া পরবেন- এ নিয়ে অনেকেই ভাবনা চিন্তা করে না। কিন্তু গবেষণা বলছে, ঠিক মতো ব্যবহার না জানলে হতে পারে মারাত্মক বিপদ।

সম্প্রতি আমেরিকার ‘ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট ফর হেলথ অ্যান্ড ক্লিনিক্যাল এক্সেলেন্স’ একটি লাইফস্টাইল সমীক্ষা থেকে বেশ কিছু পরামর্শ জানিয়েছে।
জেনে নেয়া যাক সেগুলো-

১.অন্তর্বাস বা জাঙ্গিয়া হতে হবে পরিষ্কার, সুতির এবং ঢিলাঢালা।

২.হালকা রংয়ের অন্তর্বাস ব্যবহার করা ভাল, যাতে ময়লা হলে সহজেই বোঝা যায়।

৩.অন্তর্বাস অবশ্যই প্রতিদিন বদলানো দরকার। বিশেষত যারা বেশি ঘামেন বা বেশি সময় বাইরে কাটান।

৪.অপরিষ্কার জাঙ্গিয়া থেকে উরুসন্ধি, পুরুষাঙ্গ এবং অণ্ডথলিতে দুর্গন্ধ, ঘা, এমনকী ইনফেকশনও হতে পারে।

৫.আঁটোসাটো জাঙ্গিয়া ব্যবহার করা উচিত নয়। বিশেষ করে বয়ঃসন্ধির সময়ে। কারণ, এই সময়ে পুরুষাঙ্গের বিকাশ ঘটে।

৬.পলিয়েস্টার বা সিনথেটিক উপাদানে তৈরি আন্ডারওয়্যার পরলে পুরুষত্বহীনতাও ঘটতে পারে।

৭.রাতে ঘুমের সময়ে কখনও জাঙ্গিয়া পরা উচিত নয়। এতে শুক্রাণু উৎপাদন ব্যাহত হয়।

৮.জাঙ্গিয়া নিয়ে সব থেকে বেশি সতর্ক থাকা উচিত কিশোর ও তরুণদের।

সূত্র : জি নিউজ

 

ডিম খাওয়ার নিয়মাবলী ও উপকারিতা

ডিম খেতে কার না ভাল লাগে। পুষ্টিকর এই খাবারের গুণাগুণের কথা আমরা কম বেশি সবাই জানি। ডিমদুধ এ দুটো খাবারকে আমরা সুপারফুড বলি। কারণ, আমাদের শরীরে প্রয়োজনীয় প্রোটিন ও ক্যালসিয়ামের অনেকখানি আমরা এই দুটি খাবার থেকে পাই।

আমরা আজকে ডিমের পুষ্টিগুণের পাশাপাশি ডিম কোন সময় খেতে হবে, কোন বয়সী মানুষের কয়টা ডিম খাওয়া উচিত, ডিম কী সেদ্ধ করে খাওয়া ভাল নাকি ভাজি করে খেতে হবে, কুসুম খাব কী খাবনা- এসব নিয়ে বিস্তারিত আলাপ করব।

আপনি যখন বাচ্চাদের ডিম খেতে দিবেন তা সেদ্ধ করে দিতে পারেন। চাইলে পোচ, অয়েল পোচ বা পানি পোচ করেও দিতে পারেন। তবে খেয়াল রাখব ক্যালরিটা যাতে ঠিক থাকে। বাচ্চারা যেহেতু দৌড়ঝাঁপ বেশী করে তাই তার ক্যালরি বেশি লাগে। একটা ডিম সেদ্ধ করে খেলে সেখান থেকে যে ক্যালরি পাওয়া যায় অয়েল পোচ করে খেলে তার ক্যালরিটা অনেক বেড়ে যায়। সেটা বাচ্চাদের জন্য অনেক উপযোগী।

কিন্তু যারা ওজন কমাতে চাচ্ছেন তাদের জন্য ডিম অয়েল পোচ না খেয়ে সেদ্ধ খাওয়া উচিত। যাদের কোলস্টেরলের সমস্যা তারা অনেক সময় কুসুমটা ফেলে দিয়ে শুধু সাদা অংশ খেয়ে থাকেন। তাদের জন্য সুখবর হলো দেশে এখন ওমেগা- ৩ সমৃদ্ধ ডিম পাওয়া যাচ্ছে যা খেলে আপনার কখনো হৃদরোগের সমস্যা হবে না বরং হার্ট থাকবে ভাল। ওমেগা -৩ হলো এক ধরনের অসম্পৃক্ত চর্বি। স্বাস্থ্যসচেতন মানুষ মাত্রই জানেন, সম্পৃক্ত চর্বি হৃদযন্ত্রের জন্য ক্ষতিকর। তেল-চর্বিযুক্ত খাবার একটা বয়সের পর সে কারণে খেতে মানা। কিন্তু অসম্পৃক্ত চর্বিযুক্ত খাবার খেতে বাধা নেই,বরং এটি রক্তে উপকারি চর্বির পরিমাণ বাড়ায় এবং দেহের নানা উপকার করে। প্রকৃতিতে কয়েক ধরনের ওমেগা-৩ চর্বি আছে।

গর্ভাবস্থায় ডিম খাওয়া খুব জরুরি। কারণ, অনেকে মাছের গন্ধটা নিতে পারছেন না কিন্তু তার প্রোটিনটা নিশ্চিত করতে হবে। সেক্ষেত্রে ডিম খাওয়া উচিত। আবার যদি এমন হয় বারবার মাছ বা মাংস খেতে ভাল লাগছে না সেক্ষেত্রেও ডিম খেতে পারেন যা আপনার প্রয়োজনীয় প্রোটিনের চাহিদা পূরণ করবে।

যারা লিভার, হার্ট বা ডায়াবেটিক সমস্যায় ভুগছেন তাদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই- যখন আপনি ডিম খাবেন তখন আপনাকে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে এ্যালবুমিনের পরিমাণটা কত আছে। এ্যালবুমিনের পরিমাণ যদি কম থাকে তাহলে দৈনিক চারটা ডিম খেতে পারেন। তবে তার আগে অবশ্যই কনসালটেন্টের পরামর্শ নিতে হবে। এখানে বলে রাখা আবশ্যক, অন্য সব খাদ্য উপাদান বিকল্প উৎস থেকে পাওয়া গেলেও এ্যালবুমিন অন্য কোন খাদ্য উৎস থেকে পাওয়া সম্ভব নয়। এ্যালবুমিন শুধু মাত্র ডিমে পাওয়া যায়।

তাই প্রত্যেকের সুস্থ সুন্দর জীবন যাপনের জন্য প্রত্যেকদিন একটা করে ডিম খাদ্য তালিকায় রাখা উচিত।

লেখক: নিউট্রিশিয়ানিস্ট ও ডায়াটেশিয়ান, বিআরবি হাসপাতাল, ঢাকা।

নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করার আহবান


শাহজাদপুরে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রাথী তরু লোদী’র মাস্ক বিতরণ

জাহিদ হাসান, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) :
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হালিমুল হক মিরুকে সাথে নিয়ে আসন্ন শাহজাদপুর পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মনির আক্তার খান তরু লোদী পৌর এলাকার বিভিন্ন সড়কে পথচারীদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করেন।  আজ সোমবার সকালে শাহজাদপুর পৌরসভার সামনের সড়ক থেকে মাষ্ক বিতরণের এ কার্যক্রম শুরু করেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা হাবিবুল হক সাব্বির, যুবলীগ নেতা সাজ্জাদ হোসেন, রওশন আলম, এস,কে, লিটন , পৌর কাউন্সিলর লিয়াকত হোসেন, আব্দুর রাজ্জাক, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক সাংবাদিক আসলাম আলী প্রমূখ। এ সময় হালিমুল হক মিরু আগামী ২৮ ডিসেম্বর শাহজাদপুর পৌর নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে তরুলোদীকে মেয়র পদে নির্বাচিত করার আহ্বান জানান।

শাহজাদপুরে এমপি স্বপনের সুস্থতা কামনায় আ.লীগ ও সহযোগী সংগঠনের দোয়া মাহফিল

তুরস্কের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সিরাজগঞ্জ-০৬ ( শাহজাদপুর) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য, সাবেক শিল্প-উপমন্ত্রী ও উপজেলা আ.লীগ সভাপতি, শাহজাদপুরের মাটি ও মানুষের নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব হাসিবুর রহমান স্বপনের সুস্থতা ও রোগমুক্তি কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) বাদ জুম্মা পৌর এলাকার দরগাহপাড়াস্থ মখদুমিয়া জামে মসজিদে আ.লীগ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে এ দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। আসন্ন শাহজাদপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকা প্রতীকে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী আওয়ামী লীগ নেতা তরু লোদী, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম শাহু, উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ আহবায়ক আশিকুল হক দিলার, উপজেলা ছাত্রলীগ সেক্রেটারি শেখ মোঃ রাসেলের সমন্বিত উদ্যোগে এ দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। যৌথভাবে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল পরিচালনা করেন মখদুমিয়া জামে মসজিদের পেশ ইমাম আলহাজ্ব হাফেজ মাওলানা আলী আকবর ছাহেব, সহকারী আলহাজ্ব মাওলানা আবু বক্কর সিদ্দিকী ছাহেব, ইমাম আলহাজ্ব ক্বারি আবুল কালাম আজাদ ছাহেব প্রমূখ। 

উক্ত দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে দলীয় নেতাকর্মী ও শত শত ধর্মপ্রাণ মুসলমানেরা অংশ নিয়ে স্থানীয় এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব হাসিবুর রহমান স্বপনের সুস্থতা কামনায় ও সমগ্র মুসলিম জাহানের কল্যাণ কামনায় আল্লাহপাকের নিকট প্রার্থনা করেন। দোয়া শেষে নেওয়াজ বিতরণ করা হয়।

শাহজাদপুরেই হবে ক্যান্সার রোগের চিকিৎসা মর্মে সংবাদ সম্মেলন

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি : শাহজাদপুরেই হবে ক্যান্সার রোগের চিকিৎসা এই মর্মে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে ও আন্তর্জাতিক ক্যান্সার গবেষণা কেন্দ্র (ইকরা) শাহজাদপুর সেন্টার তৈরিতে সবাইকে সার্বিকভাবে এগিয়ে আসার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন ডাঃ আমিনুল ইসলাম খান । জানা যায়, ইতিমধ্যেই দুইজন ক্যান্সার রোগীর চিকিৎসা করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আমিনুল ইসলাম খান ।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা হলরুমে এ সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আমিনুল ইসলাম খান বলেন, এখন থেকে শাহজাদপুরেই হবে ক্যান্সারের চিকিৎসা। তিনি বলেন, আমি ইতিমধ্যে শাহজাদপুরে দুইজন ক্যান্সার রোগীর চিকিৎসা করেছি। এখানে ক্যান্সারের চিকিৎসা কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে এবং এখানেই এ ক্যান্সার রোগীদের চিকিৎসা করা হবে। এ সময় তিনি দুইজন রোগীর সাথে পরিচয় করিয়ে দেন ,যাদের তিনি চিকিৎসা করে সুস্থ্য করেছেন। তিনি শাহজাদপুরে ক্যান্সার চিকিৎসা কেন্দ্র স্থাপনের ব্যাপারে সবার সহযোগীতা কামনা করেন। এসময় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রফেসর আজাদ রহমান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাঃ নাজনিন মমতাজ ও স্থানীয় সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন ।

সুস্থতা কামনায় দুই মাজার শরীফের কাঙালদের দোয়া


শাহজাদপুরে এমপি স্বপনের সুস্থতা কামনায় কাঙালদের মাঝে খাবার বিতরণ

তুরস্কের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সিরাজগঞ্জ-০৬ ( শাহজাদপুর) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য, সাবেক শিল্প-উপমন্ত্রী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, শাহজাদপুরের গণমানুষের নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব হাসিবুর রহমান স্বপনের রোগমুক্তি ও সুস্থতা কামনায় হযরত মখদুম শাহদৌলা শহিদ ইয়ামেনি (রঃ) ও হযরত শাহ হাবিবুল্লাহ (রঃ) এর মাজার শরীফে অবস্থানরত কাঙালদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়েছে। শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) সকাল ৭ টায় মণিরামপুর বাজারস্থ শাহজাহান সুপার মার্কেটের মালিক শহিদুল ইসলাম জুলফিকারের ব্যক্তি উদ্যোগে কাঙালদের মাঝে এ খাবার বিতরন করা হয়। উক্ত দুই মাজার শরীফে অবস্থানরত কাঙাল, কাঙালিনী, দুস্থরা খাবার পেয়ে স্থানীয় এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব হাসিবুর রহমান স্বপনের সুস্থতা কামনায় আল্লাহপাকের নিকট দোয়া করেন।