শাহজাদপুরে আবুল কালাম আজাদ স্মৃতি ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

শাহজাদপুরে আবুল কালাম আজাদ স্মৃতি ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলার পুরস্কার বিতরনী

শাহজাদপুর উপজেলার গাড়াদহ ইউনিয়নের চর নবীপুর নুরজাহান মযহার স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে ২০ ফেব্রুয়ারী শনিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে আবুল কালাম আজাদ স্মৃতি ব্যাডমিন্টন-২০২১ এর ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়।

চর নবীপুর প্রগতি সংঘ আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন,জনতা ব্যাংক লিমিটেডের এমডি ও সিইও বীর মক্তিযোদ্ধা আব্দুছ ছালাম আজাদ।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন, বিশিষ্ট শিল্পপতি মো: ইউনুস, জনতা ব্যাংক লিমিটেডের রাজশাহী বিভাগীয় জেনারেল ম্যানেজার সাখাওয়াত হোসেন, সিরাজগঞ্জ আঞ্চলিক কার্যালয়ের ইনচার্জ, এজিএম আবু সেলিম রেজা, ওমান প্রবাসী প্রকৌশলী মিহিরুল ইসলাম মিহির।

আলহাজ্ব ওসমান গণির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, চর নবীপুর প্রগতি সংঘের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন মিলন সহ অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ।

এ ব্যাডমিন্টান টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় অংশ গ্রহণ করেন, নাটোর ও পাবনার ফরিদপুর উপজেলার দু‘টি দল। এতে ফরিদপুর দল চ্যাম্পিয়ান হয়। এ খেলা শেষে বিজয়ীদের মাঝে প্রধান অতিথি পুরষ্কার বিতরণ করেন।

শাহজাদপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ অনুষ্ঠিত

 সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শনিবার (২০ফেব্রুয়ারী) সকালে ৩৭ রেজিমেন্ট এয়ার ডিফেন্স আর্টিলারি ও জেলা প্রশাসন সিরাজগঞ্জের আয়োজনে শাহজাদপুর উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে এ ম্যারাথন  শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক ঘুরে আবার উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে এসে শেষ হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা এর সভাপতিত্বে এ  ম্যারথন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ হাসিবুর রহমান স্বপন এমপি,বিশেষ অতিথি  উপজেলা চেয়ারম্যান প্রফেসর আজাদ রহমান শাহজাহান,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ লিয়াকত হোসেন,পৌর মেয়র মনির আক্তার খান তরু লোদী,উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এলিজা খান।এসময় অন্যান্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার ভুমি মোঃ মাসুদ হোসেন,সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মুস্তাক আহমেদ প্রমুখ।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ শাহজাদপুর উপজেলা পুরুষ  দলের ১ম স্থান অর্জন করেন  সামিরুল ইসলাম।৫কিঃমিঃ অতিক্রম করতে তিনি ১৮মিঃ ১সেঃ সময় নেন।
মহিলা দলের ১ম স্থান অর্জন করেন  সোনিয়া। ৫কিঃমিঃ অতিক্রম করতে তিনি ২৫ মিঃ ৪৮সেঃ সময় নেন।উপজেলার বিভিন্ন  অফিসারদের মধ্য ১ম স্থান অধিকার করেন উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ফজলুল হক।
এসময় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন ইউএনও শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা,  উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রফেসর আজাদ  রহমান ভাইস চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী,সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মুস্তাক আহমেদ।

এসপিএল-২০২১


শাহজাদপুর প্রিমিয়ার লীগের খেলোয়ার নিলাম অনুষ্ঠিত

শাহজাদপুর প্রিমিয়ার লীগ (এসপিএল) ২০২১ সালের ক্রিকেট আসরের খেলোয়ারদের নিলাম অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার বিকেলে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলা পরিষদ শহিদ স্মৃতি সম্মেলন কক্ষে এ নিলামের আয়োজন করা হয়।

উপজেলা ক্রিকেটার্স এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মারুফ হোসেন সুনামের সভাপতিত্বে
শাহজাদপুর প্রিমিয়ার লীগ (এসপিএল) এর ক্রিকেট খেলোয়ার নিলাম অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শাহজাদপুর পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র মনির আক্তার খান তরু লোদী।

বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী, আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শামসুল আলম প্রমুখ।

শাহজাদপুরে গুধিবাড়ী প্রিমিয়ার লীগ টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত

শাহজাদপুরের কৈজুরী ইউনিয়নে গুধিবাড়ী প্রিমিয়ার লীগ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অননুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার(৫ ফেব্রুয়ারী) বিকেলে গুধিবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এক জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে সুপার লায়ন কিং ক্লাব বনাম বন্ধু ক্লাব ফাইনাল খেলায় অংশগ্রহণ করে।

৮১ রানের টার্গেট নিয়ে বন্ধু ক্লাবের বিপক্ষে খেলে সুপার লায়ন কিং ক্লাব বিজয়ী হয়। পরে আয়োজন কমিটির সভাপতি ইউনুস আলীর পরিচালনায় বিজয়ী ও রানার্সআপ এ দুই দলের অধিনায়কদের হাতে পুরুস্কার তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য লায়ন মোঃ নুর হোসেন সৈকত।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, প্রেসক্লাব শাহজাদপুরের সাধারণ সম্পাদক ও এশিয়ান টিভির প্রতিনিধি মোঃ ওমর ফারুক, আওয়ামীলীগ নেতা নুর ইসলাম, জুবায়ের হোসেন সহ অন্যান্যরা।

শাহজাদপুরে ক্রিকেট প্রিমিয়ার লীগের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

শাহজাদপুরে চরনবীপুর ক্রিকেট প্রিমিয়ার লীগের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকালে শাহজাদপুর উপজেলার চরনবীপুর ড.মযহারুল ইসলাম স্কুল এন্ড কলেজ মাঠ প্রাঙ্গনে চরনবীপুর ক্রিকেট প্রিমিয়ার লীগের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়।

চরনবীপুর প্রগতি সংঘ আয়োজিত এ প্রিমিয়ার গীগে উল্লাপাড়া, বেলকুচি ও শাহজাদপুর উপজেলার মোট ১৬ টি দল অংশ গ্রহন করে।

পরিশেষে এক্টিব বয়েস ক্রিকেট একাদশ শাহজাদপুর বনাম চরতারাবাড়িয়া ক্রিকেট একাদশ উল্লাপাড়ার মধ্যে ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। এ ফাইনাল খেলায় ৪৮ রানে শাহজাদপুরকে পরাজিত করে চরতারাবাড়িয়া ক্রিকেট একাদশ বিজয়ী হয়। এ খেলায় ম্যান অব দা ম্যাচ হয়েছে চরতারাবাড়িয়া ক্রিকেট একাদশের মোঃ সুমন। খেলা শেষে সেখানে পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

চরনবীপুর প্রগতী সংঘের সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন মিলনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ী দলের হাতে ২৪ ইঞ্চি এল ইডি টেলিভিশন পুরস্কার তুলে দেন জনতা ব্যাংকের সিই ও এন্ড এমডি বীর মুক্তি যোদ্ধা আব্দুস ছালাম আজাদ। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ট সমাজ সেবক মিহিরুল ইসলাম মিহির।

ও’ ইন্ডিজ সিরিজে টাইগারদের নতুন জার্সি

সব কিছু ঠিক থাকলে চলতি মাসের ২০ তারিখে সিরিজের ১ম ওডিআই ম্যাচে ওয়েস্টইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামবে টাইগাররা। এই সিরিজে নতুন জার্সি পরে মাঠে নামবে টাইগার বাহিনী। স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর পূর্তি উপলক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের জার্সিতে লাল-সবুজ ছাড়া আর কোনো রং ব্যবহার করা হয়নি। জানিয়েছেন বিসিবি’র ক্রিকেট অপারেশন্সের চেয়ারম্যান আকরাম খান।

মুজিববর্ষের অনেক আয়োজনই গেছে ভেস্তে। স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আবারও উদ্যোগী ক্রিকেট বোর্ড। কোভিড পরিস্থিতিতে তেমন কোনো আয়োজন সম্ভব নয়। তবুও সুবর্ণজয়ন্তীর উদযাপনে শামিল হতে চায় বিসিবি।

বিশ্বমঞ্চে টাইগারদের পরিচয়ও লাল-সবুজে। বিভিন্ন সময় যার মাঝে অন্য রঙের উপস্থিতিও দেখা গেছে। কিন্তু, বিশেষ বছরে জার্সিটাও হওয়া চাই বিশেষ। ৭১’এ সবুজ দেশটা যে লাল রক্তে হয়েছিলো রঞ্জিত, সে গল্পটাই প্রতিফলিত হোক সাকিব-তামিমদের গায়ে।

বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান আকরাম খান বলেন, পুরো দেশের মতো আমাদের ক্রিকেট বোর্ড আর খেলোয়াড়রা এটার সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে যাচ্ছি। এটা একটা বিশেষ বছর। যেহেতু আমাদের ৫০ তম স্বাধীনতা দিবসের বছর। উদযাপনের জন্য আমরা জার্সির ব্যাপারটি মাথায় রেখেছি। বাংলাদেশের পতাকার মতোই করেছি। সবুজ এবং লাল দিয়ে বানানো। অন্য কোনো রং নেই। আমাদের মুক্তিযোদ্ধা ভাইয়েরা স্বাধীনতার পর যেভাবে উদযাপন করেছে, সেটা তুলে ধরেছি। আমাদের স্মৃতিসৌধকে তুলে ধরা হয়েছে। আমাদের অনেক কিছু করার ইচ্ছে ছিলো। কিন্তু, কোভিডের জন্য হচ্ছেনা। এটা দুঃখজনক। তারপরও যতোটুকু সম্ভব, চেষ্টা করছি। স্মারক হিসেবে কয়েন রাখারও চিন্তা ।উল্লেখ্য জার্সি উন্মোচনের পর সেটাতে বাংলাদেশ লেখা ছিলো না পরবর্তীতে ভক্তদের দাবীর মুখে টাইগারদের নতুন এই জার্সিতে বাংলাদেশ লেখা সংযুক্ত করা হয়েছে।

শাহজাদপুরে ইউনিয়নভিত্তিক বঙ্গবন্ধু টি-টুয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধন

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সরকারি মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বঙ্গবন্ধু টি-২০ ইউনিয়ন ক্রিকেট টুর্নামেন্ট- এর শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে।

রবিবার (১৭ ডিসেম্বর)সকালে উপজেলা ক্রিকেটার্স এ্যাসোসিয়েশন কর্তৃক আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নবনির্বাচিত পৌর মেয়র মনির আক্তার খান তরু লোদী। এতে সভাপতিত্ব করেন, উপজেলা ক্রিকেট এ্যাসোসিয়েশন এর সভাপতি মারুফ হাসান সুনাম।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিদ মাহমুদ খান, শাহজাদপুর পৌর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম শাহু, উপজেলা পৌর যুবলীগের আহ্বায়ক মাসুদুল হাসান মাসুদ।
এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আগত রাজনৈতিক, সামাজিক নেতৃবৃন্দ।
উদ্বোধনী ম্যাচে বাঘাবাড়ী টাইগার্স একাদশ বনাম পোরজনা সূর্য তরুন একদশের বিপক্ষে মাঠে নামে। উদ্বোধনী খেলায় ১০৯ রানে জয়লাভ করে বাঘাবাড়ী টাইগার্স একাদশ।
উল্লেখ্য মাসব্যাপী এই টুর্নামেন্টে মোট ২৮টি দল অংশগ্রহণ করবে সবগুলো ম্যাচ শাহজাদপুর সরকারি মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হবে।

এ কেমন মুশফিক?

১৩তম ওভারে একবার, ১৭তম ওভারে আরেকবার। এক ম্যাচে পর পর দুবার আবে’গ ধরে রাখতে পারলেন না মুশফিকুর রহিম। সতীর্থ নাসুম আহমেদের দিকে দুবার বল দিয়ে তে’ড়ে গেলেন। মা’র’তে উদ্যত হলেন মাঠের মধ্যেই।

সোমবার বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের এলিমিনেটর ম্যাচে ফরচুন বরিশালের সঙ্গে ঘটল এমন ঘটনা। ১৫১ রান তাড়া করতে থাকা বরিশালকে এগিয়ে নিচ্ছিলেন আফিফ হোসেন। ম্যাচে রোমাঞ্চ, উত্তেজনার আভাস দেখা যাচ্ছিল।

পরের ঘটনা ১৭তম ওভারে। তখন খেলায় অনেকটা নিয়’ন্ত্রণ বেক্সিমকো ঢাকার। শফিকুলের বলে ফিফটি করা আফিফের ম্যাচ যায় উইকেটের পেছনে সেই ক্যাচ হাতে জমান মুশফিক। শর্ট ফাইন লেগে থাকা নাসুমও চলে আসেন ক্যাচ নিতে। দুজনের ধাক্কা প্রায় লেগেই যাচ্ছিল। এবারও আবেগ নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় তার। বল হাতে থাকা অবস্থায় নাসুমকে প্রায় ঘু’ষি মা’র’তে উদ্যত হতে দেখা যায় তাকে।

খেলার মাঠে উ’ত্তেজ’নার মুহূ’র্তে প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়দের সঙ্গে অনেক ঘটনাই ঘটে। তবে এক ম্যাচ নিজ দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে এমন দৃশ্য বিরল।

মাঠেই চটেছেন সাইফউদ্দিন

হারলে বঙ্গবন্ধু টি ২০ কাপের প্লে অপ খেলা অনিশ্চিত।এমন ম্যাচে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের মুখোমুখি হয়েছিলো মিনিষ্টার গ্রুপ রাজশাহী আজ রাজশাহী-চট্টগ্রামের মধ্যকার ম্যাচে এক অন্য সাইফের দেখা মিলেছে।প্রথম ইনিংসের শেষ ওভারে বোলার সাইফের বলে বিগ শট ট্রাই করেন চট্টগ্রামের ব্যাটসম্যান শামসুর রহমান।

শামসুরের নেয়া শটটি ফিল্ডার আনিসুলের বেশ কিছুটা সামনে ড্রপ করে।আনিসুল ক্যাচ নেওয়ার চেষ্টা না করে বাউন্ডারি বাচানোর জন্যে খানিকটা স্লো এপ্রোচ করেন।

তাতেই ক্ষেপে যান সাইফ।ফিল্ডার আনিসুলের দিকে এমন অঙ্গভঙ্গি প্রকাশ করেন।টেলিভিশন রিপ্লেতে সে দৃশ্য দেখা গেলো বার বার।

ইটস টোটালি আনফেয়ার ফ্রম সাইফউদ্দিন।হাই লেভেলের ক্রিকেটে নিজ দলের সতীর্থের প্রতি এমন আচরণ খুবই বেমানান।
পরে অবশ্য দুঃখ প্রকাশ করেছে সাইফউদ্দিন।এদিন গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের কাছে পরাজিত হয়েছে মিনিষ্টার গ্রুপ রাজশাহী।

ধর্ষনের সাজা ৯ বছরই বহাল থাকলো রবিনিওর

৫ বারের বিশ্বকাপ জয়ী দল ব্রাজিলের  ফুটবল ইতিহাসে রবিনিও এক ঝরে পড়া তারার নাম। একটা উজ্জ্বল সম্ভাবনাময় নক্ষত্রের পতন কত বাজেভাবে হতে পারে, সেটির উদাহরণই হয়তো হয়ে থাকবে রবিনিওর ক্যারিয়ার জুড়ে

পেলের ক্লাব সান্তোসে শুরুতে এতটাই ঝলক দেখিয়েছিলেন যে, পেলের উত্তরসূরিও ভাবা হতো তাঁকে। মাত্র ১৯ বছর বয়সেই রিয়াল মাদ্রিদের ট্রেন চলে এসেছিল তাঁর ক্যারিয়ারের জংশনে। জিদান-বেকহাম-রাউলদের রিয়ালে ‘১০’ নম্বর জার্সিটাও তাঁর ভাগ্যেই জুটেছিল। কিন্তু অনেক ব্রাজিলিয়ানের মতো নৈশক্লাবের ছটা, নারীসঙ্গের লোভ আর অগোছালো জীবনের অভ্যাসে ঘুণ ধরেছিল রবিনিওর ফুটবলে।

এতটাই ঘুণ ধরেছিল যে নিজে জড়িয়ে পড়েছিলেন জঘন্যতম এক অপরাধে। রিয়াল, ম্যানচেস্টার সিটি ঘুরে এসি মিলানে পাঁচ বছর থাকার সময় এক নারকীয় কাণ্ড ঘটিয়েছিলেন মিলানের এক নৈশক্লাবে। সেখানেই আলবেনিয়ান বংশোদ্ভূত ২৩ বছর বয়সী এক নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছিল রবিনিওর বিরুদ্ধে। ২০১৭ সালে সেটির রায়ে ৯ বছর জেলের সাজা হয়েছিল রবিনিওর।

তখন থেকেই ইতালিতে যাননি রবিনিও, গেলেই যে জেলে যেতে হবে! কিন্তু এমন কুৎসিত কাজ করার পর জেলে না গেলেই কি শুধু নিজের সম্মান রক্ষা করা যায়? যায় না। রবিনিও-ও পারেননি। পাপের শাস্তি হিসেবে যে কাজটা সবচেয়ে ভালো করতে পারেন, সে কাজটাই করতে পারছেন না—ফুটবল খেলা।

শৈশবের ক্লাব সান্তোসে ফিরেছিলেন কিছুদিন আগে। ঘরে ফিরে আবেগের বশে রবিনিও-ও জানিয়েছিলেন, প্রিয় ক্লাবকে সাহায্য করাই তাঁর লক্ষ্য, যে কারণে একদম সর্বনিম্ন বেতনের চুক্তি করেছিলেন। কিন্তু প্রিয় ক্লাবের সঙ্গে রবিনিওর এই মধুর মিলনে বাধা হয়ে দাঁড়ায় ব্রাজিল তারকার কালো অতীত। এর মধ্যেই ধর্ষণকাণ্ডের জের ধরে রবিনিওর সঙ্গে চুক্তি বাতিল করে সান্তোস। যদিও বারবার নিজেকে নিরপরাধ দাবি করে এসেছেন এই ব্রাজিল তারকা। গায়ে লেগে থাকা এই কালি মুছতে আপিল করেছিলেন মিলান কোর্টে। যদি বিচারক মহোদয়ের করুণা হয় শাস্তি কমানোর জন্য! সেটা হয়নি। আপিলের পরও রবিনিওর শাস্তি একটুও কমাননি মিলানের কোর্ট।

রায়ের মাধ্যমে আবারও প্রমাণ হয়ে গেল, যে ছেলের কথা ছিল পেলের উত্তরসূরি হওয়ার, সে আদতে এক হীন, দুশ্চরিত্রের মানবসন্তান ছাড়া কিছুই নয়। অবশেষে ধর্ষনের সাজা ৯ বছরই বহাল থাকলো রবিনিওর