শাহজাদপুরে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পতাকা উত্তোলনের ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন

আজ ৯ মার্চ মঙ্গলবার শাহজাদপুরে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পতাকা উত্তোলনের ৫০ বছর পূর্তি পালন করেছে জাতীয় সমাজ তান্ত্রিকদল জাসদ শাহজাদপুর উপজেলা ও পৌর শাখা এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন। ততকালিন ছাত্রনেতা শাহজাদপুর সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি শাহিদুজ্জামান হেলাল আজকের এই দিনে ১৯৭১ সালের ৯ মার্চ ছাত্রজনতাকে একত্রিত করে শাহজাদপুরে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পতাকা উত্তোলন করে। ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে শাহজাদপুর জাতীয় সমাজ তান্ত্রিকদল জাসদ এর আয়োজনে বিভিন্ন কর্মসুচি পালিত হয়েছে। কর্মসুচির মধ্যে ছিল সাকালে জাসদ দলীয় কার্যালয় জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন সকাল ১০টায় শাহজাদপুর সরকারি কলেজে মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক শাহজাদপুরের প্রথম পতাকা উত্তোলক শাহিদুজ্জামান হেলাল এর কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শাহজাদপুর সরকারি কলেজ থেকে একটি পতাকা মিছিল বের করে। মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে শাহজাদপুর কোট চত্বরে গিয়ে শেষ করে, শাহজাদপুর মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।উক্ত আলোচনা সভায় উপজেলা জাসদের সভাপতি শফিকুজ্জামান শফির সভাপতিত্বে ও কেন্দ্রীয় যুব জোটের সাংগঠনিক সম্পদাক হাসানুজ্জামান তুহিনের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রফেসর আজাদ রহমান,বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন জেলা জাসদের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই তালুকদার, শাহজাদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি বিমল কুমার কুন্ডু, প্রমূখ।

ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে শাহজাদপুর থানা পুলিশের আনন্দ উদযাপন

রোববার ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ ও বাংলাদেশ এলডিসি থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে জাতিসংঘের চুড়ান্ত সুপারিশ প্রাপ্তিতে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর থানা পুলিশের আয়োজনে আনন্দ উদযাপন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। এদিন (রবিবার) বিকালে শাহজাদপুর থানা চত্বরে এ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহিদ মাহমুদ খানের সভাপতিত্বে ও পুলিশ পরিদর্শক (ওপারেশন এন্ড কমিউনিটি পুলিশিং) আব্দুল মজিদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ আনন্দ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিরাজগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার (শাহজাদপুর সার্কেল) হাসিবুল ইসলাম। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন শাহজাদপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রফেসর আজাদ রহমান, ভাইস-চেয়ারম্যান মোঃ লিয়াকত আলী, শাহজাদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি বিমল কুন্ডু প্রমূখ।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে শাহজাদপুর ইব্রাহিম পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এর প্রধান শিক্ষক কামরুন্নাহার লাকি, শাহজাদপুর সরকারি মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় এর সহকারী শিক্ষক সুমনা আক্তার শিমু, শাহজাদপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) কমল কুমার দেবনাথ, এস আই খলিলুর রহমান, পোরজনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বাবু, পৌর কাউন্সিলর আল-মাহমুদ প্রাং, আছাব আলী, জহরলাল হোসেন, আফছার আলী প্রমূখ।

আলোচনা সভা শেষে সেখানে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে শাহজাদপুর থানার সকল পুলিশ সদস্যসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যার প্রতিবাদে শাহজাদপুরে মানববন্ধন

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত সংবাদকর্মী বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন শাহজাদপুর প্রেসক্লাবের গণমাধ্যমকর্মীরা।

আজ শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টায় শাহজদপুর প্রেস ক্লাবের আয়োজনে এ কর্মসূচি পালিত হয়। শাহজাদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি বিমল কুমার কুন্ডুর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন শাহজাদপুর প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি সাংবাদিক আবুল কাশেম, সহ-সভাপতি এম এ জাফর লিটন,যুগ্ম-সাধারণ সম্পদাক সাংবাদিক মোঃ আল আমিন হোসেন, সাংবাদিক রাসেল সরকার, এসময় সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদকর্মীরা বলেন, সাংবাদিক বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যাকাণ্ডের এক সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও হত্যাকারীরা গ্রেফতার হয়নি। দ্রুত দায়ীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চাপরাশিরহাট বাজারে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এই সংবাদ কর্মী না ফেরার দেশে চলে যান। এ মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক মুমিদুজ্জামান জাহান, সাগর বসাক, শামসুর রহমান শিশির, জহুরুল ইসলাম, মাসুদ মোশারফ, মিলন মাহফুজ, আমিনুল ইসলাম,এম এ হান্নান, নয়ন আলী, জাহিদ হাসান, মীর্জা হুমায়ন, মিথুন বসাক প্রমুখ।

শাহজাদপুরে বিএনপি’র আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

শাহজাদপুরে বিএনপি’র আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

আজ ২১শে ফেব্রুয়ারি মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে শাহজাদপুর বিএনপি’র পক্ষ থেকে বিভিন্ন কর্মসুচি পালন করেছে। কর্মসুচির মধ্যে ছিল ভোর ৬ঃ৩০ মিনিটে প্রভাত ফেরি সকাল ৭টায় অমর একুশের শহিদদের প্রতি শ্রব্ধান্জলি, সকাল ৭ঃ৩০ মিনিটে বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা শহিদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ম-আহবায়ক ইকবাল হোসেন হিরু, আরিফুজ্জামান আরিফ, পৌর বিএনপি’র আহবায়ক প্রফেসর আলহাজ্ব আবু শামীম, সদস্য সচিব আব্দুল আজিজ, উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল ইসলাম রাজা, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পদাক আমির হোসেন সবুজ, বিএনপি নেতা এ্যাড. রায়হান উদ্দিন, শহিদুল ইসলাম নান্নু, পৌর বিএনপি নেতা খন্দকার মাসুদ রানা, সাকিক চৌধুরী, উপজেলা সদস্য সচিব আলাল হোসেন, যুগ্ম-আহবায়ক মোঃ জাহিদুল ইসলাম, মাসুম রানা, পৌর যুবদলের আহবায়ক মাহমুদুল হাসান সজল, যুগ্ম-আহবায়ক আরাফাত আলী রবিউল, মতিন, রহমত আলী, উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক আব্দুল্লা-আল-মামুন জুয়েল, সদস্য সচিব মোজাহারুল ইসলাম মোজা, যুগ্ম-আহবায়ক হোসাঈন আলী ও ইউনুছ আলী প্রমূখ।

শাহজাদপুরে পৌর বিএনপি’র সাবেক সম্পাদক এর রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া ও আলোচনা সভা

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার খন্জনদিয়ার মহল্লায় উপজেলা বিএনপি’র আহবায়ক প্রফেসর ড.এমএ মুহিতের নিজ বাসভবনে শাহজাদপুর বিএনপি’র আয়োজনে পৌর বিএনপি’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবুবক্কার সরকার এর রূহের মাগফিরাত কামনায় মিলাদ মাহফিল, দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার অনুষ্ঠানটি উক্ত মিলাদ মাহফল ও আলোচনা সভায় এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ম-আহবায়ক মোঃ ইকবাল হোসেন হিরু, মোঃ আরিফুজ্জামান আরিফ,উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সাধারণ সম্পদাক মোঃ আনোয়ার হোসেন সাবেক সাংগঠনিক সম্পদাক মোঃ রেজাউল ইসলাম রাজা, পৌর বিএনপি নেতা খন্দকার মাসুদ রানা,সাকিক চৌধুরী, উপজেলা যুবদলের আহবায়ক মোঃ মিজানুর রহমান মিন্টু, যুগ্ম-আহবায়ক মোঃ জাহিদুল ইসলাম,মোঃ আরিফ প্রাং,পৌর যুবদলের আহবায়ক মাহমুদুল হাসান সজল,প্রমুখ।

শাহজাদপুর পৌর বিএনপি’র সাবেক সাধারন সম্পাদকের ইন্তেকাল

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর পৌর বিএনপি’র সাবেক সাধারন সম্পাদক, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী দ্বারিয়াপুর মহল্লার আলহাজ্ব আবুবক্কার সরকার (৭৩) নিজ বাসভবনে ১৩ জানুয়ারী রাত্রি ১.০৫ মিনিটের সময় ইন্তেকাল করেছেন( ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। আজ বাদ জোহর দ্বারিয়াপুর হাফিজিয়া মাদ্রাসা মাঠে মরহুমের নামাজে জানাজা শেষে দ্বারিয়াপুর কবরস্থানে বাবা মায়ের কবরে পাশে সমাহিত করা করা হয়।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য রুমানা মাহমুদ, বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চু,শাহজাদপুর উপজেলা বিএনপি’র ব্রিগেড প্রধান মোঃ মজিবর রহমান লেবু,সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপি’র প্রধান উপদেষ্ঠা শাহজাদপুর উপজেলা বিএনপি’র আহবায়ক প্রফেসর ড. এমএ মুহিত, সদস্য সচিব আলহাজ্ব এ্যাড.আবুল কাশেম,যুগ্ম-আহবায়ক ইকবাল হোসেন হিরু, মোঃ আরিফুজ্জামান আরিফ,। মৃত্যুকালে স্ত্রী,চার পুত্র এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

অভিযোগকারী ইউপি চেয়ারম্যান হাজী সুলতান আমাকে মুক্তিযোদ্ধা ও আমার মেয়েকে মুক্তিযোদ্ধার মেয়ে হিসেবে প্রত্যয়নপত্র দিয়েছেন; ৭১ সালে তার বয়স ছিলো ২ বছর


শাহজাদপুরে অপ্রপ্রচারের প্রতিবাদে মুক্তিযোদ্ধা বজলুর রশীদের পাল্টা সংবাদ সম্মেলন

শাহজাদপুর বঙ্গবন্ধু মহিলা ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ (অবঃ), সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও এনায়েতপুর থানা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা বজলুর রশীদের বিরুদ্ধে জালালপুর ইউপি চেয়ারম্যান হাজী সুলতান মাহমুদ আহূত অপপ্রচারর প্রতিবাদে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করেছেন মুক্তিযোদ্ধা বজলুর রশীদ ।

সোমবার (১১ জানুয়ারি) সকালে শাহজাদপুর পৌর এলাকার রপপুর মহল্লার বাসা বাড়িতে অনুষ্ঠিত পাল্টা সংবাদ সম্মেলনে উত্থাপিত অভিযোগ মিথ্যা, ভিত্তিহীন, উদ্দেশ্য প্রণোদিত ও চরম মানহানিকর উল্লেখ্য করে প্রতিবাদে লিখিত বক্তব্যে মুক্তিযোদ্ধা বজলুর রশীদ বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সাড়া দিয়ে ১৯৭১ সালে ১৬ বছর বয়স মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করি। রণাঙ্গনের ৭ নং সেক্টরে সশস্ত্র যুদ্ধ করার স্বীকৃতি স্বরপ ১৯৯৪ সাল বাংলাদশ মুক্তিযাদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ডে বীরমুক্তিযোদ্ধা হিসেবে আমার নাম তালিকাভূক্ত হয়। ২০০০ সালের ১২ জুন প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ডের চেয়ারম্যান আব্দুল আহাদ চৌধুরীর যৌথ স্বাক্ষরিত সনদপত্রের ( ক্রমিক নং- ২৭২৫৭) মাধ্যমে আমাকে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দেয়া হয় ও ২০০৪ নাম গেজেট ভুক্ত হয়। ২০১৭ সালে মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাইয়ে মুক্তিযুদ্ধ সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে যাচাই বাছাই কমিটি আমাকে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে প্রত্যয়ণ করে । মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের দেয়া সনদপত্রের অালোকে পরবর্তীতে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে ভাতাপ্রাপ্ত হই।’

মুক্তিযোদ্ধা বজলুর রশীদ লিখিত বক্তব্যে ক্ষোভ প্রকাশ করে আরও জানান, ‘শাহজাদপুরের জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদের আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় আমাকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করতে প্রধান প্রতিপক্ষ বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান হাজী সুলতান মাহমুদ গত ৬ জানুয়ারি সংবাদ সম্মেলন করে অপ্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা আখ্যায়িত করে আমার বিরুদ্ধে যেসব অভিযাগ করেছেন তা অসত্য, মানহানীকর ও ষড়যন্ত্রমূলক। আমাকে অপ্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে অভিযোগকারী হাজী সুলতান মাহমুদের মুক্তিযুদ্ধের সময় বয়স ছিলো মাত্র ২ বছর। এছাড়া, অভিযোগকারী ইউপি চেয়ারম্যান হাজী সুলতান মাহমুদ ইউনিয়ন পরিষদের প্যাডে আমাকে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা ও আমার মেয়ে বর্নকেও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান উল্লেখ করে প্রত্যয়নপত্র দিয়েছেন।’
এজন্য, পাল্টা এ সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রকৃত সংবাদ প্রচারের জন্য উপস্থিত সংবাদকর্মীদের অনুরোধ জানান মুক্তিযোদ্ধা বজলুর রশীদ। উক্ত পাল্টা সংবাদ সম্মেলনে উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নের সৈয়দপুর গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ শাহজাদপুরে কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

শাহজাদপুরের প্রবীন চিকিৎসক ডাঃ আবু সাঈদ আর নেই

প্রবীন চিকিৎসক ডাঃ আবু সাঈদ

শাহজাদপুরের কৃতি সন্তান সুনামধন্য ডাঃ আবু সাঈদ (৯৭) দ্বারিয়াপুর নিবাসী ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৬ জানুয়ারী রাত্রি ১০.৩০ মিনিটের সময় ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মরহুমের প্রথম নামাজে জানাজা আজ বাদ জোহর শাহজাদপুর সরকারি কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হয় এবং বাদ আসর তার নিজ ইউনিয়নের চর- নরিনার কবরস্থান মাঠে দ্বিতীয় নামাজে জানাজা শেষে চর-নরিনা কবরস্থানে বাবা মায়ের কবরে পাশে সমাহিত করা করা হবে।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছেন শাহজাদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি বিমল কুমার কুন্ডু, সাধারণ সম্পদাক শফিকুজ্জামান শফি, শাহজাদপুর সংবাদ ডটকমের সম্পাদক আবুল বাশার ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ শরিফ সরকার, সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য রুমানা মাহমুদ, বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চু, সাংগঠনিক সম্পদাক মীর্জা মোস্তফা জামান,শাহজাদপুর উপজেলা বিএনপি’র আহবায়ক প্রফেসর ড. এমএ মুহিত, সদস্য সচিব আলহাজ্ব এ্যাড.আবুল কাশেম, যুগ্ম-আহবায়ক ইকবাল হোসেন হিরু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস-চেয়ারম্যন মুস্তাক আহমেদ। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে এবং এক মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

শাহজাদপুরে ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন

শুক্রবার (১লা জানুয়ারি)  বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ৪২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শাহজাদপুর উপজেলার হাবিবুল্লাহনগর ইউনিয়নের শ্রীফলতলা গ্রামে উপজেলা বিএনপি’র আহবায়ক প্রফেসর ড.এমএ মুহিতের নিজ বাসভবনে উপজেলা ছাত্রদলের আয়োজনে বিভিন্ন কর্মসুচি পালন করা হয়। কর্মসুচির মধ্যে ছিলো সকাল ৮ঃ০০টায় জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন সকাল ৮ঃ৩০ মিনিটে বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা শহিদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও সকাল ১০ টায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত আলোচনা সভায় উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক আব্দুল্লাহ -মামুন -জুয়েল এর সভাপতিত্বে বক্তব্য উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ম-আহবায়ক আরিফুজ্জামান আরিফ,উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পদাক মোঃ আমির হোসেন সবুজ,উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সাংগঠনিক সম্পদাক মোঃ রেজাউল ইসলাম রাজা,পৌর বিএনপি নেতা খন্দকার মাসুদ রানা, সাকিক চৌধুরী, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম-আহবায়ক মোঃ জাহিদুল ইসলাম প্রমূখ। আলোচনা শেষে কেক কাটা হয়।

 

শাহজাদপুরে সাংবাদিক মিলন মাহফুজের মাতৃবিয়োগ

শাহজাদপুর প্রেস ক্লাবের সদস্য জয়যাত্রা টেলিভিশন ও দৈনিক সকালের সময় পত্রিকার শাহজাদপুর প্রতিনিধি মিলন মাহফুজের মাতা ডায়া নিবাসী মোছা : মনোয়ারা বেগম (৬০) মঙ্গলবার (৩০ ডিসেম্বর) রাত ৯ টা ৪৫ মিনিটে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার আগারগাঁও নিউরো সাইন্স হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। বুধবার সকাল ১০ টায় শাহজাদপুর উপজেলার হাবিবুল্লাহনগর ইউনিয়নের ডায়া কবরস্থান সংলগ্ন স্থানে মরহুমার নামাজে যানাজা শেষে ডায়া কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়েছে। মৃত্যুকালে তিনি ৫ ছেলে, ১ মেয়ে, নাতি-নাতনীসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।
এদিকে, সাংবাদিক মিলন মাহফুজের মাতা মনোয়ারা বেগমের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশপূর্বক শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন শাহজাদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি বিমল কুমার কুন্ডু, সাধারন সম্পাদক শফিকুজ্জামান শফিসহ প্রেস ক্লাবের সদস্যবৃন্দ।