সিরাজগঞ্জে জজের সামনে আসামীর আত্নহত্যার চেষ্টা

সিরাজগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের এজলাসে আজ সোমবার আসামীর কাঠগড়ায় দাড়িয়ে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করে মোক্তার হোসেন নামের এক আসামী। পরে বিচারকের আদেশে তাকে সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মোক্তার হোসেন রায়গঞ্জ উপজেলার মিত্রতেঘরি গ্রামের সাইফুল ইসলামের ছেলে।
জানা গেছে, স্ত্রীর দায়ের করা মামলায় দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে হাজিরা দিতে এসেছিলেন মোক্তার। মামলার শুনানি চলাকালে এজলাসে দাঁড়িয়ে হঠাৎ করেই বিষপান করেন তিনি।

ওই আদালতের এপিপি অ্যাডভোকেট আনোয়ার পারভেজ লিমন বলেন, ‘আদালতে স্বেচ্ছায় হাজিরা দিতে এসেছিলেন মোক্তার। শুনানি চলাকালে হঠাৎ করে তার হাত থেকে একটি প্লাস্টিকের বোতল পড়ে যায়। বোতল থেকে পানির মতো কীটনাশক মেঝেতে গড়িয়ে পড়ে। আসামি মোক্তারও অসুস্থ হয়ে পড়েন। তখন বিচারক আব্দুল্লাহ আল-মামুন তাকে হাসপাতালে পাঠানোর নির্দেশ দেন। তিনি কীটনাশক পান করেছেন কিনা, সেটা আমাদের চোখে পড়েনি।