শাহজাদপুর পৌর নির্বাচন ভোট গ্রহন  বিএনপি প্রার্থীর নির্বাচন বয়কট

আজ সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।  সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে বিকাল ৪টার সময় শেষ হয়।

প্রথম ধাপে দেশে ২৫টি পৌরসভা নির্বাচনের মধ্যে  শাহজাদপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদের জন্য ৪ জন, ৯টি ওয়ার্ডের সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৩৮ জন, সংরক্ষিত ৩টি নারী কাউন্সিলর পদে ১৬ জন। মোট ৫৮ জন পুরুষ ও নারী প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।
সরেজমিনে শাহজাদপুর পৌর শহরের দরগাহপাড়া মাদ্রাসা কেন্দ্র, পুকুরপার লক্ষীমতি স্কুল কেন্দ্র , পুকুরপাড় মুক্তিযোদ্ধা হাইস্কুল কেন্দ্র, পাইলট হাইস্কুল কেন্দ্র, গার্লস হাইস্কুল কেন্দ্র, নলুয়া স্কুল কেন্দ্র ও পারকোলা স্কুল কেন্দ্র পরিদর্শনে গিয়ে ভোট কেন্দ্র গুলোতে ভোটারদের সরব উপস্থিতি চোখে পরে।

এদিকে বেলা ৩টায় সাংবাদিকদের সামনে উপস্থিত হয়ে বিএনপি’র ধানের শীষ প্রতিকের প্রার্থী মাহমুদুল হাসান স্বজল নির্বচন প্রত্যাখ্যান করে বয়কটের ঘোষণা দেন। এসময় তিনি অভিযোগ করেন আওমীলীগের প্রার্থী ও তার সমর্থক আওয়ামীলীগ নেতা কর্মীরা প্রতিটি কেন্দ্র দখলে নিয়ে ধানের শীষের প্রতিকের এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়া হয় ভোটারদের ফিঙ্গার দেওয়ার পর নিজেরাই নৌকায় ভোট দিচ্ছে। তিনি আরো্ অভিযোগ করেন, কেন্দ্র দখলের সময় বিএনপির বেশ কয়েকজন নেতাকে মারধর করা হয়।
শীতকে উপেক্ষা করে সকাল থেকেই ভোটারদের উপস্থিতিও চোখে পরার মতো ছিল।
পুরুষ ভোটারদের তুলনায় নারী ভোটারদের উপস্থিতি বেশ দেখা গেছে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে যে কোন বিশৃঙ্খলা এড়াতে পুলিশ, র্যা ব, ডিবি, বিজিবি , আনসার মোতায়েন রয়েছে।
সার্বক্ষণিক বেশ কয়েকজন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রের আইনশৃংখলা তদারকি করেছেন। জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহমেদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা পৌর এলাকার বিভি্ন্ন ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন করেছেন।
সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ইভিএম এর মাধ্যমে বিরতিহীন ভাবে ভোট গ্রহণ চলবে। প্রথম শ্রেণির শাহজাদপুর পৌরসভার মোট ভোটার সংখ্যা ৫১ হাজার ৮৬। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২৫ হাজার ৩৭১ এবং মহিলা ভোটার ২৫ হাজার ৭১৫ জন। ২৫টি কেন্দ্রের ১৪৭টি ভোট কক্ষে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।