শাহজাদপুর পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডে প্রতিপক্ষের পোস্টার ছিড়ে ফেলার অভিযোগ

আসছে ২৮ডিসেম্বর শাহজাদপুর পৌরসভার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ৯ নং ওয়ার্ড বাড়াবিলে প্রতিপক্ষ কাউন্সিলর প্রার্থী আফসার শিকদারের (উটপাখি মার্কা) নির্বাচনী পোস্টার ছিড়ে ফেলাকে কেন্দ্র করে উভয় প্রার্থীর সমর্থকদের মাঝে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোন সময় তা সংঘর্ষে রূপ নিতে পারে।

সোমবার রাতে বাড়াবিলের বিভিন্ন স্থানে বর্তমান কাউন্সিলর আব্দুর রউফের পাঞ্জাবি মার্কার সমর্থনে নির্বাচনী মিছিল থেকে প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থী আফসার শিকদারের উটপাখি মার্কার পোস্টার ছিড়ে ফেলার অভিযোগ করেন আফসার শিকদার ও তার সমর্থকরা। এসময় বিভিন্ন স্থানে উটপাখি মার্কার পোস্টার বিক্ষিপ্তভাবে পড়ে থাকতে দেখা যায়। খবর পেয়ে রাত ১১টার দিকে এস আই আব্দুল মান্নানের নেতৃত্বে শাহজাদপুর থানার একদল পুলিশ এলাকা পরিদর্শন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার উদ্যোগ নেন।

শাহজাদপুর পৌরসভার গুরুত্বপূর্ণ এলাকা বাড়াবিল মঙ্গলদহ নিয়ে গঠিত ৯ নং ওয়ার্ডে এবারের নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে বর্তমান কাউন্সিলর আব্দুর রউফ (পাঞ্জাবি) এবং আফসার শিকদার (উটপাখি) প্রতিদ্বন্ধীতা করছেন। এলাকাবাসীর ধারণা এ ওয়ার্ডে উভয় প্রার্থীর মাঝে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে পারে। প্রতীক বরাদ্দের পর থেকেই এলাকাবাসী নির্বাচনী উৎসবে মেতে ওঠেন। কিন্তু সোমবারের ঘটনায় হঠাৎ করেই এখানে উত্তপ্ত পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে।

এবিষয়ে আফসার শিকদার বলেন, “বর্তমান কাউন্সিলরের বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্যর্থতার কারনে উটপাখির প্রতি গণ জোয়ার তৈরি হওয়ায় নিশ্চিত পরাজয় জেনে প্রতিপক্ষ পাঞ্জাবি মার্কার প্রার্থী পরিস্থিতি ঘোলা করে ভোটারদের মাঝে আতংক ছড়িয়ে দেয়ার জন্যই আমার পোস্টার ছিড়েছে। ইনশাআল্লাহ ২৮ ডিসেম্বর উটপাখি মার্কার বিজয়ের মাধ্যমে জনগণ তাদের দাত ভাঙ্গা জবাব দিবেন।”

অভিযোগ অস্বীকার করে পাঞ্জাবি মার্কার প্রার্থী আব্দুর রউফ বলেন “তারা নিজেরাই পোস্টার ছিড়ে আমার উপর দোষ চাপাচ্ছে। আমার কোন নেতাকর্মী এর সাথে জড়িত নন।”

এবিষয়ে শাহজাদপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।