ফলোআপ : -চিকিৎসাসেবা বঞ্চিত পৌরবাসী


শাহজাদপুর পৌরসভার ডাঃ লিয়াকতের দ্বৈত চাকরি

সিরাজগঞ্জের প্রথম শ্রেণির শাহজাদপুর পৌরসভার ডাঃ লিয়াকত আলী একসঙ্গে চাকরি করছেন দুই স্থানে। ফলে চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন পৌর এলাকার রোগীরা। ডাঃ লিয়াকত আলী পৌরসভায় নিয়োগ পাওয়ার পর থেকেই অফিস ফাঁকি দিয়ে অন্যত্র প্রাকটিস চালিয়ে আসছেন। তিনি শাহজাদপুর পৌরসভায় চাকরি করার পাশাপাশি সিরাজগঞ্জ নর্থ বেঙ্গল মেডিক্যেল কলেজ হাসপাতালেও চাকরি করছেন । সেখানে তিনি ক্লাস নিচ্ছেন । তিনি পৌরসভায় এসেই কিছু রোগী দেখেই পাশর্^বর্তী বেসরকারি বাধন হাসপাতাল এবং রংধনু হাসপাতালে রোগী দেখার জন্য চলে যান। সেখানে তিনি রোগী দেখার ফি বেশি পান বলেই পৌরসভায় রোগী না দেখে প্রাইভেট হাসপাতালে রোগী দেখেন এবং পৌরসভায় আগত রোগীদের সেখানে রেফার্ড করেন বলে অনেকেই মনে করেন। পৌরসভায় তিনি ঠিকমত ডিউটি না করলেও প্রতিমাসে নির্ধারিত ৬২ হাজার টাকা বেতন নিতে কখনও ভুল করেন না।
বিজ্ঞ মহলের মতে, ‘শাহজাদপুর পৌরসভায় চাকরি করেও অফিস টাইমে কিভাবে এতদিন পাশর্^বর্তী ২টি বেসরকারি ক্লিনিকে প্রাকটিস চালিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি সিরাজগঞ্জ নর্থ বেঙ্গল মেডিক্যেল কলেজ হাসপাতালেও শিক্ষকতা করছেন, তা বোধ্যগম্য নয়। বিষয়টি অবিলম্বে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের তদন্তপূর্বক যথাযথ ব্যবস্থাগ্রহণ করা উচিত।’