মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১

“মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য“ ভুপেন হাজারিকার ঐতিহাসিক এই গানটিকে বাস্তবে রুপ দিয়েছে শাহজাদপুর পৌরসভার কর্মকর্তা ও কর্মচারিরা। তাদের দেওয়া আর্থিক সহযোগীতায় সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরলো শিল্পী খাতুন নামের একজন পরিচ্ছন্নতাকর্মী।

জানা যায়, শাহজাদপুর পৌরসভার পরিচ্ছন্নতাকর্মী (ঝাড়ুদার) শিল্পী খাতুন(৩০) বেশ কয়েকদিন যাবৎ পেটের ব্যাথায় ভুগছিল। গত ১ অক্টোবর প্রচন্ড পেটের ব্যাথায় ছটফট করতে থাকলে তার স্বামী পৌরসভার পরিচ্ছন্নতাকর্মী মোঃ রাসেল তাকে স্থানীয় মা ও শিশু কেয়ার হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানায়, শিল্পী খাতুনের এ্যাপেন্ডিক্সের নাড়িতে ইনফেকশন হয়ে ফুলে গেছে, তাকে বাঁচাতে হলে অপারেশন প্রয়োজন। তবে ভেতরে ঘা শুকিয়ে গেলে তারপর অপারেশন করতে হবে, এজন্য ১ মাসের ব্যাবস্থাপত্র দেন।

ব্যাবস্থাপত্র অনুযায়ী ঔষধ কেনার টাকা না থাকায় শিল্পীর স্বামী রাসেল পৌরসভার কনজারভেন্সি ইন্সপেক্টর রাজু আহমেদ কে জানায়। রাজু আহমেদ নিজে ও সহকর্মীদের কাছ থেকে আর্থিক সহযোগীতা নিয়ে শিল্পী খাতুনের জন্য ১ মাসের ঔষধ কিনে দেন। পরে পৌরসভার কনজারভেন্সি ইন্সপেক্টর আজু আহমেদ উদ্দোগ নিয়ে পৌরসভার কর্মরত অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কাছ থেকে সহযোগীতা নিয়েই গত ৯ই নভেম্বর মঙ্গলবার পৌর শহরের মা ও শিশু কেয়ার হাসপাতালে শিল্পী খাতুনের অপারেশন সম্পন্ন হয়।

দুই দিন হাসপাতালে পর্যবেক্ষণে থাকার পর গতশনিবার(১৩নভেম্বর) শাহজাদপুর পৌরসভার কনজারভেন্সি ইন্সপেক্টর রাজু আহমেদ ও টিপু খান হাসপাতালের গিয়ে বিল পরিশোধ করেন। সেই সাথে বেশ কয়েকদিনের ঔষধ ও ফলমুল কিনে শিল্পী খাতুনের কাছে হস্তান্তর করেন।

এই বিষয়ে শাহজাদপুর পৌরসভার কনজারভেন্সি ইন্সপেক্টর রাজু আহমেদ বলেন, রাসেল ও শিল্পী দম্পতি দুজনই পৌরসভার পরিচ্ছন্নকর্মী। তাদের যা বেতন তাতে সংসার চালানোই কঠিন, এরই মধ্যে শিল্পী খাতুন গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পরে। শিল্পীর স্বামী যখন আমাকে কান্নাজড়িত কন্ঠে বলে উঠলো সামান্য কিছু টাকার অভাবে আমার স্ত্রীকে বাঁচাতে পারবো না। তখনই আমি তাকে আশ্বস্ত করি যে তোমার স্ত্রীর খরচ আমরা ব্যবস্থা করবো। তারপরই পৌরসভার সবাই যখন বিষয়টি জানতে পারে প্রত্যেকেই শিল্পীর চিকিৎসার জন্য সাধ্যমত সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেয়। শিল্পীর চিকিৎসা ও আনুসাঙ্গিক মিলিয়ে যে খরচ হয়েছে তার প্রায়ই আমরা সহযোগীতা করেছি। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও সহযোগীতা করেছেন।

পরিচ্ছন্নতাকর্মী শিল্পী খাতুন বলেন, আমরা খেটে খাওয়া গরিব মানুষ। দুজনে যা আয় করি সেটা দিয়ে দুই সন্তান সহ সংসার চালানোই কঠিন। ডাক্তার যখন জানালো আমার অপারেশন করাতে হবে তখন বেঁচে থাকার আশাই ছেড়ে দিয়েছিলাম। রাজু ভাই ও পৌসসভার সবাই আমাকে বেঁচে থাকতে সহযোগীতা করেছেন, সেজন্য আমি পৌরসভার সকল কর্মকর্তা কর্মচারীর কাছে কৃতজ্ঞ।

সম্পর্কিত সংবাদ

৩ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষা কার্যক্রম থেকে বিরত রেখে রবি’র শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিনের বিরুদ্ধে আদেশ

জাতীয়

৩ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষা কার্যক্রম থেকে বিরত রেখে রবি’র শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিনের বিরুদ্ধে আদেশ

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের ২০১৭-১৮, ২০১৮-১৯ ও ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদ...

‘এক ওয়ার্ডে-ই ১৪ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা’

শাহজাদপুর

‘এক ওয়ার্ডে-ই ১৪ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা’

শাহজাদপুর উপজেলার বেলতৈল ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড থেকেই ইউপি নির্বাচনে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন ১৪ প্রার্থী। তবে এ নির্বাচনে সব প্র...

ছেলের লাশ  টয়লেটে রেখে নির্বাচনের প্রচারণা! বাবা-মা সহ আটক ৪

শাহজাদপুর

ছেলের লাশ টয়লেটে রেখে নির্বাচনের প্রচারণা! বাবা-মা সহ আটক ৪

বাড়ির টয়লেটের সেপটিক ট্রাংকে ২ (২৬ নভেম্বর) ছেলের লাশ রাখে নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়েছে বাবা-মা সহ পরিবারের লোকজন। এমন‌...

হেফাজতে ইসলামের মহাসচিবের ইন্তেকাল

রাজনীতি

হেফাজতে ইসলামের মহাসচিবের ইন্তেকাল

আজ সোমবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন নুরুল ইসলাম। তিনি বার্ধক্য...

শাহজাদপুরে ১০ ইউনিয়নে ৪৭ চেয়ারম্যান ও সদস্য পদে ৫৬৪ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল

শাহজাদপুর

শাহজাদপুরে ১০ ইউনিয়নে ৪৭ চেয়ারম্যান ও সদস্য পদে ৫৬৪ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র জানায়, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষদিন পর্যন্ত দশটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যা...

শাহজাদপুরে সাংবাদিকের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ

অপরাধ

শাহজাদপুরে সাংবাদিকের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ

মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদসভায় সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেফত...