শাহজাদপুরের উন্নয়নে, শাহজাদপুরবাসীর কল্যাণে, দলের উন্নয়নে আমৃত্যূ কাজ করে যাবো -- জননেতা সাইফুল


শাহজাদপুরে সাম্ভাব্য উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী সাইফুল ইসলামের ব্যাপক গণসংযোগ

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) থেকে শামছুর রহমান শিশির : আসন্ন শাহজাদপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ থেকে দলীয় মনোনয়ন পেতে কোমড় বেধে মাঠে নেমেছেন শাহজাদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন- সাধারণ সম্পাদক ও কৈজুরী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জননেতা সাইফুল ইসলাম। দলীয় হাইকমান্ডে জোরালো তদবির করার পাশাপাশি ইতিমধ্যেই তিনি দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের সাথে নিয়ে নির্বাচনী এলাকা শাহজাদপুরের বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক গণসংযোগ শুরু করেছেন। শাহজাদপুর পৌর এলাকাসহ ১৩ টি ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে গিয়ে সাধারণ ভোটারদের সাথে তিনি কুশল বিনিময় করছেন এবং সমর্থন আরও জোরালো করতে সর্বসাধারণের মধ্যে এলাকার উন্নয়নের চিত্র, স্থানীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক কর্মকান্ডে তার ভূমিকা, চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রচার পত্র বিলি, সবার সমর্থন, দোয়া, ভালোবাসা ও সার্বিক সহযোগীতা কামনা করছেন। এছাড়াও এলাকার বহুমূখী উন্নয়নে জননেতা সাইফুল ইসলাম বরাবরই যোগ্য ও বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করে বেশ প্রশংসিত হয়েছেন।
জানা গেছে, শাহজাদপুর উপজেলার কৈজুরী ইউনিয়নের ২ বারের সাবেক সফল চেয়ারম্যান হাজী মোঃ মোশাররফ হোসেনের ছেলে শাহজাদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক ও কৈজুরী ইউনিয়ন পরিষদের পরপর ২ বার নির্বাচিত চেয়ারম্যান জননেতা সাইফুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও সমাজ সেবক হিসেবে দলের সাংগাঠনিক কাঠামো আরও সুদৃঢ় করণে ও এলাকার উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা পালন করে দলীয় নেতাকর্মীসহ এলাকাবাসীর মনের মধ্যে স্থান করে নিতে সক্ষম হয়েছেন। ইতিপূর্বে শাহজাদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে তিনি ৮ বছর সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া গত ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাংস্কৃতিক ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সদস্য হিসেবে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। জননেতা সাইফুল যমুনা নদী তীর সংরক্ষণ প্রকল্প বাস্তবায়নে বিশেষ ভূমিকা পালন করেছেন। এছাড়া তিনি কৈজুরী বাজারে মৎস শেড নির্মাণ করে শত শত এলাকাবাসীর কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে দিয়েছেন। কৈজ্রুী ইউনিয়ন পরিষদের ২ বারের চেয়ারম্যান হিসেবে যমুনা অধ্যূষিত কৈজুরী ইউনিয়নের বিভিন্ন দুর্গম এলাকার প্রায় ২ হাজার অন্ধকার ঘরে বিমামূল্যে সৌর বিদুৎ প্রদান করে ২ হাজার অন্ধকার পরিবারে আলো প্রদান করেছেন। এছাড়া তিনি শাহজাদপুরসহ বৃহত্তর চলনবিল অঞ্চলের উল্লাপাড়া, রায়গঞ্জ, তাড়াশ, ফরিদপুর, চাটমোহর, ভাঙ্গুড়া, সিংড়া, বড়াইগ্রাম, গুরুদাসপুর, আত্রাই, রাণীনগর, শেরপুর ও নন্দীগ্রাম এ ১৪ উপজেলাকে বন্যাও আওতামূক্ত করতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের আওতাভূক্ত ৩ ধাপে প্রস্তাবিত ও ১ম ধাপ চলমান প্রায় ১৫ ’শ কোটি টাকা প্রকল্প ব্যায়ের হাটপ্রাচীল- ভেড়াখোলা- থানারঘাট করতোয়া সেতু পর্যন্ত বাধ, স্লুইচ গেট নির্মাণ কাজ বাস্তবায়নে বিশেষ ভূমিকা পালন করে চলেছেন। জননেতা সাইফুল ইসলাম অনুদান প্রদান করে এ পর্যন্ত এলাকার প্রায় শতাধিক মসজিদের ভৌত ও অবকাঠামোগত উন্নয়ন করেছেন। তিনি কৈজুরী হাইস্কুলকে কলেজে রূপান্তর, কৈজুরী মহিউল ইসলাম ফাজিল মাদরাসার পাকা একাডেমিক ভবন নির্মাণ, চর কৈজুরী মাধ্যমিক উচ্চ বিদ্যালয়ে দ্বো-তল ভবন নির্মাণ, পূর্ব চরকৈজুরী ও পাথালিয়া পড়ায় পাঁকা রাস্তা নির্মাণ, অসংখ্য ব্রিজ, কালভার্ট নির্মাণসহ উপজেলার গ্রামীণ যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নতকরণ, স্কুল, কলেজ, মাদরাসা, মসজিদ, মন্দির, কবরস্থান, শ্মশানঘাটের উন্নয়নে আত্মনিবেদিত প্রাণ হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন। সর্বশেষ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৬৭ সিরাজগঞ্জ-৬ (শাহজাদপুর) সংসদীয় আসনে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আলহাজ্ব হাসিবুর রহমান স্বপনের পক্ষে পরিচালিত নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান সমন্বয়ক হিসেবে সফলতার সাথে নির্বাচনী কর্মকান্ড সফলতার সাথে পালন করে ভূয়সী প্রশংসা কুড়িয়েছেন।
এসব বিষয়ে আলাপকালে নৌকা প্রতীকের সাম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী জননেতা সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘ সফল রাষ্ট্রনায়ক, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্থানীয় সাংসদ আলহাজ্ব হাসিবুর রহমান স্বপন এমপির হাত শক্তিশালী করতে, শাহজাদপুরবাসীর উন্নয়নে ও কল্যাণে দলের একজন সেবক হিসেবে কাজ করে যাচ্ছি। আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেলে ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে আধুনিক শাহজাদপুর গড়তে আমৃত্যু কাজ করে যাবো।’