শাহজাদপুরে ভেজাল গো-খাদ্য উৎপাদনের দায়ে অর্ধলক্ষ টাকা জরিমানা

শাহজাদপুরে ভেজাল গো-খাদ্য উৎপাদনের দায়ে অর্ধলক্ষ টাকা জরিমানা

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে ভেজাল গো-খাদ্য উৎপাদন ও বিক্রির দায়ে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে এক ব্যবসায়ীকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

জানা যায়, আজ বৃহস্পতি (২২এপ্রিল) দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে স্থানীয় সাংবাদিকরা উপজেলার পোরজনা ইউনিয়নের বড় মহারাজপুর গ্রামের মোঃ চাঁদ বাবুর গোডাউন ঘরে গিয়ে তারা বিভিন্ন জ্বালানী জাতীয় দ্রব্য দিয়ে ভুষি বানাতে দেখতে পায়।

পরে শ্রমিকদের সাথে কথা বলে জানতে পারে, পোরজনা ইউনিয়নের নন্দলালপুর গ্রামের জামাত আলীর ছেলে বদিউজ্জামান (বদি) (৩৮) দীর্ঘদিন যাবত চাঁদবাবুর গোডাউন ঘর ভাড়া নিয়ে এই অবৈধ ভেজাল ভুষি তৈরী করছে।

বিষয়টি তৎক্ষনাৎ উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা: মিজানুর রহমানকে অবহিত করে, তিনি উপজেলা ভেটেরিনারী ইন্সপেক্টর ডাঃ মীর কাওছার হোসেনকে ঘটনাস্থলে দ্রুত পাঠান।

ডাঃ মীর কাওছার হোসেন উক্ত ভুষির গোডাউনে এসে পরিক্ষা নীরিক্ষা শেষে জানান, উপস্থিত উপাদান গুলো কোন ভাবেই গবাদী পশুকে খাওয়ানোর উপযোগী নয়।

তিনি আরো জানান, ভুষির বস্তার গায়ে অবশ্যই কোন কোন উপাদান রয়েছে ও প্রস্তুত এবং উত্তীর্নের তারিখ লেখা থাকতে হবে। এই গোডাউনে যে সকল জিনিস রয়েছে সেগুলো গবাদি পশুকে খাওয়ানো হলে পশুগুলো নিশ্চিত জটিল ও কঠিন রোগে ভুগবে।

পরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাসুদ হোসেন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন, এসময় তার সাথে শাহজাদপুর থানার উপ-পরিদর্শক রুবেল হোসেন সহ থানা পুলিশের একটি দল ছিল।

পরে তিনি অভিযান চালিয়ে পোরজনা বাজারে বদিউজ্জামানের(বদি) মালিকানাধীন আরো একটি ভেজাল ভুষির গোডাউনের সন্ধান পান।

পরে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে মৎস্য ও গবাদি পশুর খাদ্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ভেজাল ভুষি উৎপাদনের দায়ে বদিউজ্জামান(বদি)কে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং অনাদায়ে এক বছরের কারাদন্ড প্রদান করা হয়।

উক্ত ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাসুদ হোসেন।