শাহজাদপুরে বস্ত্র ব্যবসায়ীর উপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ

শাহজাদপুর উপজেলা ব্যবসায়ী দোকান মালিক সমিতির সদস্য ও দীপা এন্ড দীপ্ত বস্ত্র বিতানের মালিক তপন ঘোষের উপর গতকাল ১৫ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে তার ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে একদল সন্ত্রাসী হামলা চালায়। এ সময় সন্ত্রাসীদের হামলায় কর্মচারী পলাশ সাহা (২৫), গোপাল দাস (৩০), চিরঞ্জিত (২৫) ও চন্দন আহত হয়। ঘটনার সংবাদ পাওয়া মাত্রই শাহজাদপুর থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ শাহিদ মাহমুদ খান, ওসি (তদন্ত) ফজলে আশিক ও ওসি (অপারেশন) আসলাম হোসেন সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে পৌঁছান। এ সময় দোকানের সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ দেখে সন্ত্রাসীদের সনাক্ত করা হয়। তৎক্ষনাৎ থানায় ৮ জনের নাম উল্লেখ করে অভিযোগ দায়েরের সঙ্গে সঙ্গে আসামীদের গ্রেফতারের জন্য থানা পুলিশ ঝটিকা অভিযানে নামে। ঘটনার প্রতিবাদে  সেপ্টেম্বর বুধবার বিকেলে ব্যবসায়ীরা দ্বারিয়াপুর বাজার (আওয়ামীলীগ অফিসের সামনে) দোকান বন্ধ রেখে এক বিক্ষোভ ও মানববন্ধনের আয়োজন করে। মানববন্ধনের খবর পেয়ে থানা পুলিশ উপস্থিত হয়ে আসামীদের দ্রæত গ্রেফতার ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিলে ব্যবসায়ীরা মানববন্ধন কর্মসূচি স্থগিত করে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- ব্যবসায়ী দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হাজী মুনছুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক রনি খান শান্ত, সাংগঠনিক সম্পাদক হাজী আব্দুল মোমিন, ইয়ামিন হোসেন, শফিকুল ইসলাম শফি প্রমুখ। বক্তারা বলেন, ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হলে পরবর্তীতে কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা দেয়া হবে। এদিকে ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন, শাহজাদপুর উপজেলা বনিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক রবিন আকন্দ।
এ ব্যাপারে শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিদ মাহমুদ খান জানান, ঘটনার সংবাদ জানা মাত্রই আমি সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে আসি এবং তারপর থেকেই ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের জন্য আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। অচিরেই আসামী গ্রেফতার হবে এবং তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।