নিমাইগাড়ী(শান্তিপুর) - বাঘাবাড়ী সংযোগ সড়ক তৈরির দাবী


শাহজাদপুরে পুকুরপাড় -দরগাহপাড়া সংযোগ সড়ক পুনরুদ্ধারের কাজ শুরু

মনিরুল গনি চৌধুরী শুভ্র, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর পৌরসভার মাধ্যমে করতোয়া নদীর পাশ দিয়ে নদীগর্ভে চলে যাওয়া ৪ নং ওয়ার্ডের পুকুরপাড়-দরগাহপাড়া সংযোগ সড়ক পূনরুদ্ধার কাজ শুরু হয়েছে। সড়কের এ প্রকল্পটি বাস্তবায়নের কাজ হাতে নিয়েছেন শাহজাদপুর পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম শাহু।

এ বিষয়ে আমিরুল ইসলাম শাহু জানান, ‘সংযোগ এ সড়কটি ছিল হযরত মখদুম শাহদৌলা শহিদ ইয়ামেনি (রহ.) এর মাজারে যাওয়ার জন্য পুকুরপাড়, শান্তিপুর ও প্রাননাথপুর বাসীর সহজগম্য রাস্তা। বিগত ১৯৯২ -১৯৯৩ সালে করতোয়া নদীর পাড় ভাংগনের ফলে এ সড়কটি নদীগর্ভে বিলীন হয়। জনগুরুত্বপূর্ণ এ সড়কের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে শাহজাদপুর পৌরসভার মেয়রের মাধ্যমে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের কাজে হাত দেয়া হয়েছে।’এজন্য পৌর আওয়ামী লীগ নেতা আমিরুল ইসলাম শাহু পুকুরপাড়, শান্তিপুর ও প্রাননাথপুর এ ৩ গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে শাহজাদপুর পৌরসভার মেয়র মনির আক্তার খান তরু লোদীর প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
এ প্রকল্পকাজ সরেজমিন পরিদর্শনকালে আমিরুল ইসলাম শাহুর মাধ্যমে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের পর নিমাইগাড়ি থেকে বাঘাবাড়ি পর্যন্ত করতোয়া নদীর পাড় বেধে দেয়ার আরো একটি সংযোগ সড়ক প্রকল্প গ্রহনের জন্য এ প্রতিবেদকের মাধ্যমে গ্রামবাসীরা অারও প্রস্তাবনা পেশ করেন ও তা বাস্তবায়নের দাবী জানান।

প্রস্তাবিত প্রকল্পের নাম: নিমাইগাড়ি (শান্তিপুর) – বাঘাবাড়ি সংযোগ সড়ক।
প্রকল্পে যা যা থাকবে: করতোয়া নদীর পাড়ে সিড়ি, চলাচলের জন্য রাস্তা, কফি হাউস ও সংবাদপত্র কর্নার, ওয়াই ফাই কানেকশন ও লাইব্রেরি।

পুকুরপাড় মুক্তিযোদ্ধা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইকবাল হোসেন চৌধুরী এ বিষয়ে জানান, এ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে এটি শাহজাদপুর শহর রক্ষা বাঁধ হিসেবে কাজ করবে ও বাঘাবাড়ি – নগরবাড়ির সাথে কানেক্টিভিটি বাড়বে যা বাইপাস রাস্তা হিসেবে বিবেচিত হবে, ও করতোয়া নদীকে কেন্দ্র করে একটি পর্যটন কেন্দ্র গড়ে উঠবে। আশা করি প্রকল্পটি বাস্তবায়নে মেয়র মহোদয় সদয় দৃষ্টি দিবেন।