মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১

ঢোল আর লাঠির তালে তালে নাচা নাচি। অন্য দিকে প্রতিপক্ষের হাত থেকে আত্মরক্ষার কৌশল অবলম্বনের প্রচেষ্টা সম্বলিত টান টান উত্তেজনার একটি খেলার নাম লাঠি খেলা। লাঠি খেলা অনুশীলনকারীকে লাঠিয়াল বলা হয়।


শনিবার (১৩ নভেম্বর)বিকালে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার গাঁড়াদহ ইউনিয়নের গাঁড়াদহ গ্রামের ৪নং ওয়ার্ড কর্তৃক আয়োজিত ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলার আসর অনুষ্ঠিত হয়েছে। গ্রাম্য নানা শিল্প-সংস্কৃতির প্রধান অনুষঙ্গ হিসাবে লাঠি খেলা ছিল খুবই আকর্ষণীয়। কালের ক্রমে হারিয়ে যাওয়া এ লাঠি খেলা দেখতে হাজির হন নানা বয়সের সাধারণ মানুষ। ইট-পাথরের টুংটাং আওয়াজকে হার মানিয়ে কিছুটাও হলেও পুরানো দিনের গ্রামীণ চিত্ত বিনোদনের সুযোগ পান বয়ো বৃদ্ধারা। আর অনেকেই আবার দেখেছেন প্রথমবারের মত। খেলা দেখতে আসা হাজারো দর্শক মেতে ওঠেন আনন্দে। আর ঐতিহ্যবাহী এই খেলা দেখতে আগ্রহের কমতি নেই গ্রামবাসীর। কেউ খেলা দেখছে মাটিতে বসে, কেউবা গাছে চড়ে। লাঠিয়ালদের অপূর্ব কৌশল দেখে মুগ্ধ দর্শকরা। আর এই আয়োজনকে কেন্দ্র করে ছড়িয়ে পরছে উৎসবের আমেজ।

আয়োজকরা জানান, সাফল্যের ধারাবাহিকতায় গ্রামের মানুষকে আনন্দ দেবার জন্য এ আসর আয়োজন করা হয়েছে। আয়োজকরা আরও জানান, খেলাটি হারিয়ে যাচ্ছে। তাই ঐতিহ্য টিকিয়ে রাখতে এমন আয়োজন। তবে শত বছরের পুরনো এই খেলা ধরে রাখতে প্রশাসনের উদ্যোগই চাইলেন তারা।

লাঠিয়ালদের সাথে কথা বলে জানা যায়, কোন পুরস্কার বা টাকার জন্য আমরা লাঠি খেলি না। ঐতিহ্যবাহী এ খেলাটিকে ধরে রাখতে ও দর্শকদের আনন্দ দিতে আমরা লাঠি খেলে থাকি। আর যে যা দেয় আমরা তা আনন্দেই গ্রহণ করি।

উক্ত খেলায় সভাপতিত্ব করেন অত্র গ্রামের ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী মোঃ লিটন হোসেন, এই লাঠি খেলায় আরও উপস্থিত ছিলেন গাঁড়াদহ ৪নং ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার মোঃ শামছুল হক সাম, সাবেক মেম্বার মোঃ মাসুদ রানা ও রফিকুল ইসলাম, পল্লী চিকিৎসক মুকুল চন্দ্রশীল ও পল্লী চিকিৎসক রাজিব কুমার, আবুল হোসেন, শাহাদত হোসেনসহ গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

কালের ক্রমে হারিয়ে যাওয়া গ্রামীণ এ ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলাকে টিকিয়ে রাখতে দরকার প্রয়োজনীয় পৃষ্ঠপোষকতা এমনটাই মনে করছেন দর্শনার্থীরা।

সম্পর্কিত সংবাদ

৩ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষা কার্যক্রম থেকে বিরত রেখে রবি’র শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিনের বিরুদ্ধে আদেশ

জাতীয়

৩ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষা কার্যক্রম থেকে বিরত রেখে রবি’র শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিনের বিরুদ্ধে আদেশ

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের ২০১৭-১৮, ২০১৮-১৯ ও ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদ...

‘এক ওয়ার্ডে-ই ১৪ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা’

শাহজাদপুর

‘এক ওয়ার্ডে-ই ১৪ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা’

শাহজাদপুর উপজেলার বেলতৈল ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড থেকেই ইউপি নির্বাচনে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন ১৪ প্রার্থী। তবে এ নির্বাচনে সব প্র...

ছেলের লাশ  টয়লেটে রেখে নির্বাচনের প্রচারণা! বাবা-মা সহ আটক ৪

শাহজাদপুর

ছেলের লাশ টয়লেটে রেখে নির্বাচনের প্রচারণা! বাবা-মা সহ আটক ৪

বাড়ির টয়লেটের সেপটিক ট্রাংকে ২ (২৬ নভেম্বর) ছেলের লাশ রাখে নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়েছে বাবা-মা সহ পরিবারের লোকজন। এমন‌...

হেফাজতে ইসলামের মহাসচিবের ইন্তেকাল

রাজনীতি

হেফাজতে ইসলামের মহাসচিবের ইন্তেকাল

আজ সোমবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন নুরুল ইসলাম। তিনি বার্ধক্য...

শাহজাদপুরে ১০ ইউনিয়নে ৪৭ চেয়ারম্যান ও সদস্য পদে ৫৬৪ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল

শাহজাদপুর

শাহজাদপুরে ১০ ইউনিয়নে ৪৭ চেয়ারম্যান ও সদস্য পদে ৫৬৪ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র জানায়, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষদিন পর্যন্ত দশটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যা...

শাহজাদপুরে সাংবাদিকের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ

অপরাধ

শাহজাদপুরে সাংবাদিকের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ

মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদসভায় সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেফত...