শাহজাদপুরে অসহায় মানুষের পাশে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য

সারাদেশে কর্মহীন ও দরিদ্র মানুষের জন্য সহায়তার হাত বাড়িয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। কোথাও কোথাও ব্যক্তিগত পর্যায়ে গরিব মানুষের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে খাদ্যসামগ্রী। প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া হতদরিদ্র মানুষের মাঝে নিজ হাতে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করেছেন আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা। ত্রাণ পেয়ে খুশি এসব কর্মহীন মানুষ।

এরই ধারাবাহিকতায় করোনা ভাইরাসের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া শাহজাদপুর উপজেলার পৌর এলাকা সহ বিভিন্ন ইউনিয়নের দুস্থ অসহায় নারী ও সাধারণ মানুষের মাঝে ঈদ উপলক্ষ্যে মাননীয় প্রাধানমন্ত্রীর দিক নির্দেশনায় ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য মেরিনা জাহান কবিতার পক্ষে ঈদ উপহার সামগ্রী দেওয়া হয়। ঈদে এই কর্মহীন মানুষদের পরিবারে আনন্দ ফুটিয়ে তোলার জন্যে মাননীয় প্রধনমন্ত্রীর পক্ষ থেকে মেরিনা জাহান কবিতা প্রতিটি পরবিারের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী প্রদানের ব্যবস্থা করে থাকেন।

এরপরে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে করোনাভাইরাসের কারণে তৃতীয় লিঙ্গ (হিজড়া) জনগোষ্ঠীদের মাঝে ঈদ উপহার দেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য প্রফেসর মেরিনা জাহান কবিতা। এ সময় বিতরণে সাহায্য করেন উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুস্তাক আহমেদ, বিআরডিবির চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান, মনিরুল গনি চৌধুরী শুভ্র, ফারুক হাসান কাহার, শফিকুল ইসলাম শফি, নিশান, টিপু প্রমুখ।

মেরিনা জাহান কবিতামেরিনা জাহান কবিতা বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে শাহজাদপুরে করোনা পরিস্থিতির শুরু থেকেই কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণ করে আসছি। এছাড়াও বিভিন্নভাবে সমাজের নানা শ্রেণির মানুষকে সহযোগিতা করা হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীর পাশেও দাঁড়িয়েছি। সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার মানুষদের মাঝে কয়েক ধাপে মধ্যবিত্ত, কর্মহীন দুস্থ ও অসহায় বেদে সম্প্রদায়দের মাঝে নগদ অর্থ এবং খাদ্যসামগ্রী তুলে দিচ্ছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেত্রী প্রফেসর মেরিনা জাহান কবিতা।

তৃতীয় ধাপে তিনি চিন্তা করলেন একদম স্থির ভাসমান অথচ অচল জীবনচিত্র অসহায় বেদে সম্প্রদায়ের কথা- যারা ভিটেমাটি, ঘরবাড়ি, সহায় সম্পত্তিবিহীন এক মনুষ্যসমাজ, যারা ঘর থেকে বের হয়ে কেবল দশের কাছে হাত পেতেই জীবন জীবিকা চালায়। অসুখে-বিসুখেও যাদের চিকিৎসাসেবা এই সমাজে মেলেনা, যাদের সন্তানেরা আমাদের সমাজের স্কুলে শিক্ষার সুযোগ পায় না, যারা আমাদের সমাজে প্রায় অচ্ছুত এই গোষ্ঠির জন্যে কারো সহজে মনো পোড়ে না, কারো সাহায্যের হাত এগিযে আসেনা সেই অচ্ছুতদের দলে মানবতার হাত বাড়িয়ে দিলেন দেশবরেণ্য শিক্ষাগুরু ড.মযহারুল ইসলামের কন্যা প্রফেসর মেরিনা জাহান কবিতা। তার মানবিক সাহায্যের খাদ্যসামগ্রী চাল, ডাল, আটা, ছোলা, খেজুর, হাত ধোয়ার সাবান নিয়ে ভরনিশিতে সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মুস্তাক আহমেদের নেতৃত্বে তার ভলেন্টিয়ারস টিম শাহজাদপুর উপজেলার পোতাজিয়া ইউনিয়নের ভাসমান অসহায় বেদেপল্লীর ঘরে ঘরে গিয়ে পৌঁছে দিল।

তিনি অভয়দানে এই বেদে নৃ-গোষ্ঠিকে আরো আশ্বস্ত করেছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা তাদের পাশে আছেন, তাদের সামাজিক মর্যাদা তৈরীতে ইতিমধ্যে অনেক কাজ করেছেন এবং আগামীতেও করবেন। আর আমি আছি তোমাদের একজন হয়ে সময়ে-অসময়ে। আমি আওয়ামী লীগ পরিবারের সন্তান, আমি মাননীয় প্রাধানমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্তে দেশের এই খারাপ সময়ে করোনা মোকাবেলায় অসহায় মানুষদের পাশে এসে কিছুটা সাহায্য করার চেষ্টা করছি, শুধু আমি একা নই আমাদের পরিবারের সদস্যরাও আমার জন্মভূমি সিরাজগঞ্জ শাহজাদপুর উপজেলার প্রায় দশ হাজারেরও বেশী পরবিারের কাছে ত্রাণ সামগ্রী বিতরন করেছেন।

প্রফেসর মেরিনা জাহান কবিতা আরো বলেন- যতই বাধা আসুক সামনে মানুষ মানুষকে পাশে পাবে, ঝড় একদিন থেমে যাবে, পৃথিবী আবার শান্ত হবে, সমাজ বিজ্ঞানের একজন শিক্ষক ও গবেষক হিসেবে দেশের এই মহামারিতে সমাজের অসহায় মানুষদের সর্বদা পাশে থাকার চেষ্টা করবো ।

এখানে মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.