শাহজাদপুরের সেই শিশুকে উদ্ধার করলো পুলিশ

আসমাউল হোসনার বাবার বাড়ী লালমনিরহাটে। পারিবারিকভাবে বিয়ে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে।স্বামী শামীম হোসেন গত রোববার ৭ মার্চ আসমাউল হোসনাকে মারপিট করে ১৫ মাসের দুধের শিশু বাচ্চাকে রেখে বাড়ী থেকে বের করে দেন । বুকের ধনকে হারিয়ে চটফট করেছিলেন ঐ মা।নারী দিবসে ঐ সন্তান হারা মায়ের কান্নার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ছড়িয়ে পরে। এমতাবস্থায় আসমাউল হোসনা তার শিশু বাচ্চাকে উদ্ধারের জন্য আদাতের দ্বারস্থ হলে আদালত ৪৮ ঘন্টার মধ্যে বাচ্চাটিকে উদ্ধারের জন্য শাহজাদপুর থানার ওসিকে আদেশ প্রদান করেন।

মঙ্গলবার (৯মার্চ) দুপুরে শাহজাদপুর পারিবারিক জজ আদালতের বিচারক কিশোর দত্ত এ আদেশ দেন।
এ্যাডভোকেট মোঃআনোয়ার হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
পরবর্তীতে আদালতের আদেশ মোতাবেক বুধবার(১০মার্চ) বিকেলে শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিদ মাহমুদ খানের নির্দেশনায় শাহজাদপুর থানার উপ পরিদর্শক এসআই আঃ মান্নান ও এসলাম আলীসহ শাহজাদপুর থানার একটি পুলিশ টিম আসমাউল হোসনাকে নিয়ে শাহজাদপুরের চড়াচিথুলিয়া অভিযুক্ত শামীমের বসতবাড়ী থেকে ঐ শিশু বাচ্চাকে উদ্ধার করে। এসময় আসমাউল হুসনা তার শিশু বাচ্চাকে ফিরে পেয়ে আবেগ আপ্লুত ও কান্নায় ভেঙে পরেন।
এসআই আঃ মান্নান জানান ঐ শিশুটি বর্তমান তার মায়ের সাথে থানা হেফাজতে আছে বৃহস্পতিবার শাহজাদপুর পারিবারিক আদালতে নিয়ে যাওয়া হবে।