শাহজাদপুরের কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী মানিক গ্রেফতার

শামছুর রহমান শিশির : শাহজাদপুরের কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী, ৪ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী ও প্রায় এক ডজন মাদক মামলার প্রধান আসামী মানিক সরকার ওরফে মদ মানিক আজ মঙ্গলবার দুপুরে সিরাজগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এড. এমএ হামিদ লাভলুর অফিসকক্ষে গিয়ে তাকে হুমকি প্রদান করলে অফিসের পিয়ন ও আইনজীবীরা মানিককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। এ ঘটনায় এড. এমএ হামিদ লাভলুর অফিসের প্রধান সহকারী আব্দুল খালেক বাদী হয়ে মানিকসহ অজ্ঞাত আরও ৪/৫ জনকে আসামী করে দ্রুত বিচার আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন।
তথ্যানুসন্ধানে জানা গেছে, সম্প্রতি গত ২০০৯ সালের ৫ নভেম্বর শাহজাদপুর থানায় মানিক সরকারের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ২২ (গ) ধারায় দায়েরকৃত মামলায় ( মামলা নং-০৫ ) কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী মানিকের ৪ বছরের কারাদন্ডাদেশ বহাল রাখেন বিজ্ঞ আদালত। সেইসাথে তার মঞ্জুরীকৃত জামিন বাতিল করে গ্রেফতারি পরোয়ানাও জারি করেন বিজ্ঞ আদালতের বিচারক। গত ১১ জানুয়ারি বুধবার সাংবাদিক নেতা, বিশিষ্ট কলামিষ্ট, কবি, সাহিত্যিক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল বাশার শাহজাদপুরে দুর্নীতি দমন কমিশন আয়োজিত গণশুনানীতে মাদক দ্রব্য অধিদপ্তরের নানা অনিয়ম, মাদক বিক্রেতা মানিক সরকার ও মাদক বিরোধী নানা অভিযোগ করলে মানিকের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী ওইদিন রাতেই সাংবাদিক নেতা মুক্তিযোদ্ধা আবুল বাশারের বাড়িতে হামলা চালায়। এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা আবুল বাশার বাদি হয়ে মানিক সরকারসহ ১৪ জনকে আসামী করে শাহজাদপুর থানায় দ্রুতবিচার আইনে মামলা করেন। আসামী মানিক সরকারের বিরুদ্ধে থানায় অসংখ্য মামলা রয়েছে। এগুলো হলো শাহজাদপুর থানার এফআইআর নং-২৮, তারিখ : ২৯/১২/১৫ ইং, ধারা-১৪৩ /৩৪১ /৩২৩ /৩২৬ /৩০৭ /৫০৬ /১১৪ পেনাল কোড, শাহজাদপুর থানার এফআইআর নং-২৬, তারিখ : ১৯/১০/১৫ ইং, ধারা-১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ২২ (গ), শাহজাদপুর থানার এফআইআর নং-০১, তারিখ : ০১/১০/১৫ ইং, ধারা-১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ২২ (গ), শাহজাদপুর থানার এফআইআর নং-০৫, তারিখ : ০৫/১১/২০০৯ ইং, ধারা ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ২২ (গ), শাহজাদপুর থানার এফআইআর নং-০৯, তারিখ : ০৮/০৬/২০০৮ ইং, ধারা ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ২২ (গ), শাহজাদপুর থানার এফআইআর নং-১৬, তারিখ : ১৯/১১/২০০৭ ইং, ধারা ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ২২ (গ)। সর্বশেষ সাংবদিক নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল বাশারের বাড়িতে হামলার ঘটনায় দ্রুত বিচার আইনে তার বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা দায়ের হয়। সাজাপ্রাপ্ত আসামী মানিকের বিরুদ্ধে অসংখ্য মামলা থাকার পরও সে পুলিশের ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে পালিয়ে ফিরছিলো। সে গ্রেফতার হওয়ায় এলাকায় স্বস্তি ফিরে এসেছে।