শাহজাদপুরের করতোয়া নদীতে বারুণী স্নান উপলক্ষে মানুষের ঢল

নিজস্ব প্রতিনিধি : শাহজাদপুরে করতোয়া নদীতে হিন্দু ধর্মাবলম্বী মধুকৃষ্ণা ত্রয়োদশী তিথীতে মহাবারুণী স্নান উপলক্ষে আজ রোববার নদীতে মানুষের ঢল নামে। হিন্দু রীতি অনুযায়ী সকাল ১১ টার মধ্যে এই স্নান সমাপ্ত হবে। এ কারণে সকাল থেকেই শাহজাদপুর সহ আশপাশের বিভিন্ন উপজেলা নদী স্নান করার নারী-পুরুষের ঢল নামে। নিয়ম অনুসারে নদীর ঘাটে গিয়ে স্নান শেষে পুরোহিত দ্বারা মন্ত্র পাঠ করে ও সূর্য্য দেবীকে প্রণাম করে পুনরায় স্নান শেষে নারীরা একে অপরকে সিঁদুর লাগিয়ে উৎসব পালন করে। পরে মন্দিরে গিয়ে প্রার্থনা করতে হয়। পুরোহিত নিতাই চক্রবতী জানান, এই মধুকৃষ্ণা ত্রয়োদশী তিথীতে অধিক পূর্ণলাভের আশায় এই মহাবারুণী স্নান অনুষ্ঠিত হয়। শত শত বছর ধরে এ স্নান অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। এ দিন গোটা নদীর পাড়ে ছিলো ভক্তদের ভীড় লক্ষ করার মতো। এদিন শাহজাদপুরে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা নদীতেস্নান শেষে শাহজাদপুর হযরত মখদুম শাহ দৌলা শহীদ ইয়ামেনী (রঃ) মাজারে এসে প্রার্থনা জানায় এসময় মাজার চত্বরে সে এক অন্য রকম দৃশ্য লক্ষ্য করা যায়। যুগ যুগ ধরে এই মাজারে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা মোমবাতী, ধুপশলা জ্বালিয়ে এই তিথীতে বিশেষ প্রার্থনা করেন ভক্তবৃন্দরা। এদিন মাজারটা ছিলো হিন্দুদের বিশেষ প্রার্থনা দিন। হিন্দু-মুসলিম একত্রিত হয়ে এক মিলন মেলায় পরিনত হয়। মাজার ভক্তরা জানান, বছরের এই দিনে মানুষের পূর্ণলাভের আশা হাজার হাজার হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা এ মাজারে এসে তারা ভক্তি ও প্রার্থনা করে।