সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪
নিজস্ব প্রতিনিধিঃ সারাদেশব্যাপী প্রায় আড়াই লাখ নৌযান শ্রমিক আজ ১৫ এপ্রিল সোমবার মধ্যরাত থেকে ১১ দফা চুক্তি বাস্তবায়নের দাবীতে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি কর্মসূচি শুরু করতে যাচ্ছে। এদিন রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে তারা এ কর্মসূচি শুরু করবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছে। বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন দেশব্যাপী এ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। এ কর্মসূচি সফল করতে তারা ইতিমধ্যেই সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার বাঘাবাড়ি নৌবন্দর সহ দেশের ৩টি সমুদ্র বন্দর ও ৯টি অভ্যান্তরীণ নৌবন্দর এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ, পোস্টারিং, মাইকিং ও লিফলেট বিতরণ করেছে। বন্দর গুলি হল, চট্টোগ্রাম সমুদ্র বন্দর, মংলা সমুদ্র বন্দর, পায়রা সমুদ্র বন্দর, ঢাকার সদরঘাট নৌবন্দর, কেরানিগঞ্জের পানগাঁ নৌবন্দর, খুলনা নৌবন্দর, বরিশাল নৌবন্দর, নারায়ণগঞ্জ নৌবন্দর, আশুগঞ্জ নৌবন্দর যশোরের নওয়াপাড়া নৌবন্দর,পাবনার নগরবাড়ি নৌবন্দর ও সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার বাঘাবাড়ি নৌবন্দর। তাদের ১১দফা দাবীর মধ্যে রয়েছে, বাল্কহেড সহ সকল নৌযানে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি ও ডাকাতি বন্ধ, ২০১৬ সালের ঘোষিত বেতন স্কেলের পূর্ণ বাস্তবায়ন,ভারতগামী নৌযান শ্রমিকদের ল্যান্ডিং পাশ প্রদান ও হয়রানি বন্ধ, খাদ্যভাতা প্রদান, কর্মস্থলে দূর্ঘটনায় নিহত নৌযান শ্রমিকদের ১০ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ প্রদান,নৌযান শ্রমিকদের নিয়োগপত্র, পরিচয়পত্র, সার্ভিসবুক প্রদান, সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করণ, নদীর সঠিক নব্য রক্ষা, মার্কা, বয়া ও বাতি প্রয়োজন অনুযায়ী স্থাপন সহ ১১ দফা চুক্তির দাবী বাস্তবায়ন। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি শাহ আলম ভূইঁয়া, প্রায় ৭ মাস আগে মালিক পক্ষের সাথে আলোচনার মাধ্যমে এই ১১ দফা চুক্তি হয়েছে। কিন্ত এখনও পর্যন্ত তারা এটি বান্তবায়ন করেনি। আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে গত ২০ মার্চ এর মধ্যে এ দবী বাস্তবায়নের জন্য আল্টিমেটাম দিয়েছিলাম। কিন্ত সে আল্টিমেটামের সময় পার হয়ে আরো ২০/২৫ দিন পার হয়েছে। কিন্ত তারপরেও তারা এ ব্যাপাওে কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না। তাই আমরা বাধ্য হয়ে সারাদেশ ব্যাপী কাজ বন্ধ রেখে সোমবার রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য শ্রমিক কর্মবিরতি কর্মসূচি শান্তিপূর্ণ ভাবে পালন করতে যাচ্ছি। এর আগেই যদি সরকার বা মালিকপক্ষ আমাদের দাবী গুলি বাস্তবায়ন করে দেয়,তাহলে আমরা এ কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নেব। তিনি বলেন, কিন্তু এখনও পর্যন্ত কোন পক্ষই এ ব্যাপারে এগিয়ে না আসায় আমরা বাধ্য হয়ে কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এ ব্যপারে বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন চট্টোগ্রাম সমুদ্র বন্দর শাখার সাধারণ সম্পাদক নূরুল আফসার বলেন,আমাদের দাবী আদায়ের লক্ষে কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষিত কর্মসূচি বাস্তবায়নের লক্ষে চট্টোগ্রাম সমুদ্র বন্দরে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই এ বন্দরের সকল জাহাজের শ্রমিক,ড্রাইভার,মাস্টার,সুকানি,গ্রীজারদের কর্মসূচি শান্তিপূর্ণ ভাবে পালনের জন্য ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া পোস্টারিং,মাইকিং,লিফলেট বিতরণ ও গণসংযোগ করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই জাহাজ শ্রমিকরা তাদের জাহাজ নির্দিষ্টস্থানে নোঙ্গর করে কর্মসূচি পালনের সকল প্রস্তুতি নিয়েছেন। তিনি আরো বলেন,রাত ১২টা ১মিনিট থেকে ইনশাহ আল্লাহ আমরা সারাদেশের ন্যায় একযোগে এ কর্মসূচি পালন করব। বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন ঢাকা সদরঘাট বন্দর শাখার সভাপতি আব্দুল মালেক মাস্টার, বলেন,সদরঘাট ও পানগাঁ বন্দর থেকে চলাচলকারী সকল লঞ্চ শ্রমিকদের ইতিমধ্যেই এ কর্মসূচি জানিয়ে দেয়া হয়েছে। রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে তারা এ কর্মসূচি শান্তিপূর্ণ ভাবে পালন করবে। এ দাবী বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত তারা লঞ্চ চলাচল বন্ধ রাখবে। বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার বাঘাবাড়ি নৌবন্দর শাখার সভাপতি দাউদুল ইসলাম বলেন,এ কর্মসূচি পালনে বাঘাবাড়ি ও নগরবাড়িতে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত এ দুই বন্দরের সকল প্রকার নৌযান চলাচল,মাল লোড আনলোড সবকিছু বন্ধ থাকবে। এ দিকে বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন,বাঘাবাড়ি নৌবন্দর শাখা আজ সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এ কর্মসূচি সফল করতে বিক্ষোভ মিছিল,মাইকিং ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। সিরাজুল ইসলাম সিরাজ মাস্টারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তাব্য রাখেন,বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, আব্দুল ওয়াহাব মিয়া, বাঘাবাড়ি নৌবন্দর শাখার,সহ সাধারণ সম্পাদক মোঃ নূরূল আলম, জাহাঙ্গীর সরকার, নয়ন আহমেদ, আব্দুর রহমান, নূরুল ইসলাম, খোরশেদ আলম প্রমূখ। সংগঠনের কার্যালয় থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়ে বাঘাবাড়ি নৌবন্দরের সকল গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে বাঘাবাড়ি ওয়েল ডিপো গেটে গিয়ে শেষ হয়। এরপর সংগঠনের কার্যালয়ের সামনে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বাঘাবাড়ি নৌবন্দরের সকল জাহাজ শ্রমিকরা তাদের সকল কাজ বন্ধ রেখে এ কর্মসূচিতে অংশ গ্রহণ করেন। সোমবার দুপুরে বাঘাবাড়ি নৌবন্দরে গিয়ে দেখা যায়,ছোটখাট ২/১টা জাহাজ থেকে সার ও কয়লা আনলোড হচ্ছে। বাকি অর্ধশতাধিক জাহাজ ইতিমধ্যেই বন্দরের দক্ষিণ পাশে মাঝ নদীর চরে সারিবদ্ধ ভাবে নোঙ্গর করে রাখা হয়েছে। অপরদিকে বাঘাবাড়ি নৌবন্দরের সবগুলো পল্টন জাহাজ শুন্য অবস্থায় ফাঁকা পড়ে আছে। এ ব্যাপারে বাঘাবাড়ি নৌবন্দরের জাহাজ শ্রমিক আমিরুল ইসলাম,রহমত আলী,সেরাজুল,আবু বক্কার,জেনাত আলী বলেন, সোমবার রাত থেকে এ বন্দরের জাহাজের মাল লোড আনলোড বন্ধ হয়ে গেলে এ বন্দরে কর্মরত প্রায় সাড়ে ৪‘শ লেবার কর্মহীন হয়ে পরবে।ফলে এদের পরিবার পরিজন নিয়ে অনাহারে-অর্ধাহারে না খেয়ে মানবেতর জীবন যাপন করতে হবে। তাই সরকার যাতে এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেন তার জোর দাবী জানান তারা। একই দবী জানিয়েছেন,এ বন্দরে কর্মরত ট্রাক-ট্যাংকলরি শ্রমিকরাও। তারা জানান,জাহাজ বন্ধ থাকলে তাদেরও বেকার বসে থাকতে হবে। তাই তারা এ সমস্যা দ্রুত সমাধাণে সরকারকে পদক্ষেপ নিতে অনুরোধ জানান। এ ব্যাপারে একাধিক কৃষক শংকা প্রকাশ করে বলেন,চলতি বোর আবাদেও সেচ মৌসুমের এই মাঝামাঝি সময়ে জাহাজ শ্রমিকরা জাহাজ ছলাচল বন্ধ করলে বাঘাবাড়ি নৌবন্দরে সার ও জ্বালানী সরবরাহ বন্ধ হয়ে যাবে। এর প্রভাব পরবে উত্তরাঞ্চলের ১৬ জেলায়। সার ও জ্বালানী তেলের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে শাহজাদপুর সহ উত্তরাঞ্চলের ১৬ জেলায় ইরি-বোরোর আবাদে বিঘ্ন ঘটতে পারে।

সম্পর্কিত সংবাদ

আপাতত গরম কমছে না

জাতীয়

আপাতত গরম কমছে না

বুধবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল মোংলায়। দেশের মোট ১৬ জেলার ওপর দিয়ে তীব্র তা প্রবাহ বয...

দিনাজপুরে বাঁশের ফুল থেকে চাল, হচ্ছে ভাত-পোলাও

কৃষি

দিনাজপুরে বাঁশের ফুল থেকে চাল, হচ্ছে ভাত-পোলাও

ধান থেকে উৎপাদিত চালের মতো হুবহু এই বাঁশ ফুলের চাল। ভাত, পোলাও, আটা কিংবা পায়েস সব কিছু তৈরি হচ্ছে বাঁশ ফুলের চাল থেকে।...

মহানবী (সা.) এর পোশাক দেখতে ইস্তাম্বুলে হাজারো মানুষের ঢল

আন্তর্জাতিক

মহানবী (সা.) এর পোশাক দেখতে ইস্তাম্বুলে হাজারো মানুষের ঢল

খবরে বলা হয়, হযরত উওয়াইস আল-কারনি (রা.)-কে উপহার হিসেবে পোশাকটি দেন হযরত মুহাম্মদ (সা.)। তার বংশধররা এটি দীর্ঘ ১৪শ’ বছর...

আবার জোড়া গোল মেসির, মায়ামির পর এবার শীর্ষে তুললেন নিজেকে

খেলাধুলা

আবার জোড়া গোল মেসির, মায়ামির পর এবার শীর্ষে তুললেন নিজেকে

জিলেট স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরুটা অবশ্য ইন্টার মায়ামির পক্ষে ছিল না। প্রায় ৬৬ হাজার দর্শকের সামনে স্বাগতিক নিউ ইংল্যান্ড ম...

শাওয়াল মাসে বিয়ের কোনো ফজিলত আছে কি?

ধর্ম

শাওয়াল মাসে বিয়ের কোনো ফজিলত আছে কি?

সুতরাং শাওয়াল মাসে বিয়ে করাকে যেমন অশুভ মনে করা যাবে না, এ মাসে বিয়ে করাকে বিশেষ ফজিলতপূর্ণ মনে করারও কোনো ভিত্তি নেই। ত...

ঈদের পর কত দিনের মধ্যে ছয় রোজা রাখতে হয়?

ধর্ম

ঈদের পর কত দিনের মধ্যে ছয় রোজা রাখতে হয়?

শাওয়ালের ছয় রোজা একটানা না রেখে বিরতি দিয়ে আলাদা আলাদা রাখলেও আদায় হয়ে যাবে। কেউ যদি একটানা রোজা রাখে তাতেও আদায় হয়ে যাব...