শাহজাদপুরের ইউএনও নাজমুল হুসেইন খাঁন


ভালো কাজের পুরষ্কার বদলী; প্রত্যাহারের দাবি

শামছুর রহমান শিশির, বিশেষ প্রতিবেদক : অবৈধভাবে অর্জিত বিপুল পরিমান কালো টাকার মালিক ক্ষমতাধর, প্রতাপশালী সিন্ডিকেটের দাপটে সততা, স্বচ্ছতা আর জবাবদিহিতা নিশ্চিতপূর্বক জনকল্যানে প্রশাসনিক কাজ করতে গিয়ে সরকারি অনেক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা নানা বাধাবিঘœ আর লাঞ্ছনা-বঞ্ছনা এমনকি বদলীর শিকার হচ্ছেন-এমন সংবাদ কমবেশি সকলেরই জানা। আর প্রতাপশালী ওই স্বার্থান্বেষি মহলের হীন স্বার্থ চরিতার্থ কাজে যদি বাধা দেয়া হয়, প্রতিবাদ করা যায়, ‘হোক সেটা অতিদরিদ্র দুঃস্থদের জন্য বরাদ্দকৃত ১০ টাকার চাউল, ভিজিএফ, ভিজিডি’র চাউল লোপাট’ বা ‘কোটি কোটি টাকার সরকারি খাস জমি অবৈধ দখলদারদের করায়াত্ব থেকে উদ্ধারের ঘটনা’ তাহলে তো আর রক্ষে নেই! প্রতাপশালী ওই সিন্ডিকেট নিজেদের হীন স্বার্থ চরিতার্থ করতে ক্ষমতা আর কালো টাকার প্রভাবে ‘উদোর পিন্ডি বুদোর ঘাঁড়ে’ চাপিয়ে সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে ভুল বুঝিয়ে, নামে-বেনামে অভিযোগ দিয়ে অনেক সৎ, আদর্শবান সরকারি কর্মকর্তাকে নানাভাবে হয়রানী করেছে, তদবিরে বদলী করে মোবাইল ফোনে বদলির আদেশ শুনিয়ে স্বগর্বে নিজেদের অনৈতিক অসীম প্রতাপ আর প্রভাবের জানান দিয়েছে- এমন খবরও কমবেশি অনেকেই জানেন। ঠিক তেমনই সততা, স্বচ্ছতা আর জবাবদিহিতার ভিত্তিতে জনগণের কল্যানে ও এলাকার উন্নয়নে ভালো কাজ করতে গিয়ে তেমনই সিন্ডিকেটের তোপের মুখে পড়েছেন সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুল হুসেইন খাঁন। চলতি মাসের ১৭ তারিখে তাকে বদলী করা হয়েছে বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে।
তথ্যানুসন্ধানে জানা গেছে, গত বছরের ২৫ এপ্রিল শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে যোগদান করেন নাজমুল হুসেইন খাঁন। ইউএনও হিসেবে যোগদানের পর থেকে তিনি শাহজাদপুরের গণমানুষের নেতা, সাবেক শিল্প-উপমন্ত্রী, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও স্থানীয় জাতীয় সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব হাসিবুর রহমান স্বপনের দিক নির্দেশনা ও অনুমতিক্রমে জগৎ বরেণ্য অলী হযরত মখদুম শাহদৌলা শহিদ ইয়ামেনি (রহ.) এর মাজারের চলমান উন্নয়নমূলক কাজ, কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতিবিজড়িত ‘ছোট নদী’ দখলমুক্ত, পৌর এলাকায় শিল্পকলা একাডেমির ভবন নির্মাণের জন্য খাস জমি চিহ্নিতপূর্বক অবৈধ দখলমুক্ত, শাহজাদপুরে যানজট কমাতে পৌর এলাকার মণিরামপুর বাজারস্থ জাহান মটরস্ এর উত্তর থেকে শাহজাদপুর সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের দক্ষিণ পার্শ্ব পর্যন্ত, টাউন মসজিদ থেকে পশ্চিমে রবীন্দ্র কাছারিবাড়ি পর্যন্ত ও টাউন মসজিদ থেকে আদিবাসী বাগদিপাড়া মোড় পর্যন্ত, দ্বারিয়াপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দক্ষিণ পার্শ্ব হতে ছোট নদী পর্যন্ত, পৌর মার্কেটের উত্তর সীমানা থেকে ইসলামপুর (রামবাড়ি) পর্যন্ত, ইসলামপুর (রামবাড়ি) গোলজার স্মৃতি সংঘের উত্তর থেকে পশ্চিমে ইসলামপুর (রামবাড়ি) পর্যন্ত এ ৬টি সড়কের স্থান অবৈধ দখলমুক্তকরন, গোল্ডেন বুট জয়ী নারী ফুটবলার আখি’র বাড়ি তৈরির জন্য খাস জমি বরাদ্দ, বঙ্গবন্ধু মহিলা কলেজ সংলগ্ন স্থানে শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের জন্য স্থান নির্ধারণ ও চলমান স্টেডিয়াম নির্মানকাজ, বাল্যবিবাহ রোধ, সামাজিক বেষ্ঠনী কর্মসূচী বাস্তবায়নের বিশেষ উদ্যোগ, প্রকৃত কৃষকের কাছ থেকে ধান ক্রয়, নিরাপদ খাদ্য ও ভোক্তা অধিকার নিঃশ্চিতে বিশেষ ভূমিকা এবং ভেজাল বিরোধী নিয়মিত অভিযান পরিচালনা, বন্যা, খরা, ঝড়সহ প্রাকৃতিক দুর্যোগে দ্রুত পদক্ষেপ নিয়ে ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে দাঁড়ানো, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতাসহ বিভিন্ন ভাতাপ্রাপ্তদেরকে ভাতা প্রাপ্তির ব্যাপারে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিজস্ব প্রকল্প ১০ টাকা কেজি চাউলের সুষম বন্টনে জোরালো পদক্ষেপ গ্রহণসহ শাহজাদপুরের বহুমূখী উন্নয়ন, জনকল্যাণ ও সেবামূলক বিভিন্ন সরকারি কর্মসূচী সফলভাবে বাস্তবায়ন করেছেন।
শাহজাদপুর উপাজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি সাবেক অধ্যক্ষ এএম আব্দুল আজীজ বলেন, ‘জনকল্যাণে ভালো কাজ করা আর অনৈতিক কাজে বাধাঁ দেয়ার পুরষ্কার হিসেবে যদি সরকারি কোন কর্মকর্তাকে এভাবে বদলী করা হয় তাহলে ভালো কাজে আগ্রহী সরকারি অন্যান্য কর্মকর্তারা ভালো কাজে আগ্রহ হারিয়ে ফেলবেন আর দুর্নীতিবাজ প্রতাপশালীদের অবৈধ দোর্দন্ড দাপট ক্রমশঃ বৃদ্ধি পাবে; যা দেশ ও জাতির জন্য অকল্যান বয়ে আনবে।’
অপরদিকে, শাহজাদপুরের বিভিন্ন মহল ও বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ ইউএনও নাজমুল হুসেইন খাঁনের বদলীর আদেশ প্রত্যাহারের জন্য সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্মকর্তাদের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন।

মন্তব্য