বাকিতে সদাই না পেয়ে প্রতিবন্ধীর মুদি দোকানে হামলা, মারধর ও ভাঙচুর

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে প্যারালাইসিসে আক্রান্ত হয়ে দুটো পা অকেজো হয়ে পড়া মোস্তফা (৫০) নামের এক মুদি দোকানির কাছে বাকিতে সদাই না পেয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে তার উপর হামলা, মারধর ও দোকানে ভাঙচুর চালিয়েছে মারুফ (৩০) নামের এক যুবক।

জানা যায়, শাহজাদপুর পৌর শহরের বারাবিল হান্ডিয়াল পাড়ার মোস্তফা খাঁ নামের এক প্রতিবন্ধী মুদি দোকানির কাছ থেকে বাকিতে সদাই চেয়ে না পেয়ে একই গ্রামের মোশারফ সরকারের ছেলে মারুফ সরকার তার উপর হামলা চালিয়েছে। এসময় তাকে মারধর ও দোকানে অগ্নি সংযোগের চেষ্টা করা হয়।

প্রতিবন্ধী মুদি দোকানি মোস্তফা খাঁ জানান, পার্শ্ববর্তী মারুফ সরকার (৩০) মাঝে মধ্যেই আমার দোকান থেকে বাকিতে সদাই নিয়ে প্রায় ৪ হাজার টাকা বাকি ফেলে। তাকে বার বার বাকি পরিশোধ করতে বললেও সে কর্ণপাত করে না।

শনিবার দুপুর সোয়া ১টায় মারুফ সরকার দোকানে এসে বাকিতে সদাই চাইলে আমি সদাই না দিয়া পূর্বের বাকির কথা বলি। এতে মারুফ উত্তেজিত হয়ে আমাকে অকথ্য ভাষায় বকাবকি করে, একপর্যায়ে তার বাড়ি থেকে বটি দাঁ এনে আমার দোকানে কোপাতে থাকে এবং আমাকে এলোপাতারি কিলঘুষি ও লাথি মারে।

পরে দোকানে বিক্রির জন্য রাখা কেরোসিন তেল দোকানে ছিটিয়ে অগ্নিসংযোগের চেষ্টা করে। তখন আমার চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে তাকে থামায়। এই বিষয়ে আমি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছি।

এলাকাবাসী জানায়, মারুফ সরকার এলাকার চিহ্নিত একটি বখাটে ছেলে। প্রায়ই সে নিরীহ মানুষের ওপর মারামারি হানাহানি চালায়। তার পরিবারের লোকজনকে জানিয়েও কোন প্রতিকার পাওয়া যায়নি।

শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিদ মাহমুদ খান জানান, এই ঘটনায় প্রতিবন্ধী দোকানি মোস্তফা খাঁ নিজেই বাদী হয়ে ৩ জনকে অভিযুক্ত করে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।