ফলোআপ:-শাহজাদপুরে পোরজনা ইউপি চেয়ারম্যান ও অধ্যক্ষের দুর্ণীতির সংবাদ প্রকাশে গণমাধ্যমকে সাধুবাদ

শামছুর রহমান শিশির, নিজস্ব প্রতিবেদক, শাহজাদপুর : গত সোমবার সিরাজগঞ্জ থেকে প্রকাশিত, বহুল পঠিত, পাঠক প্রিয়, নন্দিত অনলাইন পত্রিকা ‘সিরাজগঞ্জ কন্ঠ ডকটম’, শাহজাদপুর থেকে প্রকাশিত অনলাইন পত্রিকা ‘শাহজাদপুর সংবাদ ডটকম’, সিরাজগঞ্জ থেকে প্রকাশিত আঞ্চলিক পত্রিকা ‘দৈনিক যমুনা প্রবাহ’ ও সিরাজগঞ্জের প্রচার সংখ্যায় শীর্ষে ‘দৈনিক যুগের কথা’ পত্রিকায় শাহজাদপুর পোরজনা ইউপি চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম মুকুল ও জামিরতা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ হায়দার আলীর বিরুদ্ধে এলজিএসপি’র ৪ লাখ ৫৯ হাজার টাকা সম্পূর্ণই আত্মসাতের সংবাদ গণমাধ্যমগুলোর অনলাইন ও প্রিন্ট সংস্করণে প্রকাশিত হবার খবর শাহজাদপুরে ছড়িয়ে পড়লে শাহজাদপুরে আসা দৈনিক যুগের কথা ও দৈনিক যমুন প্রবাহ পত্রিকার সবকটি কপি মুহুর্তেই ফুরিয়ে যায়। অনেকে সংবাদটি একনজর দেখার ও পড়ার জন্য স্থানীয় পত্রিকা এজেন্ট অফিসে গিয়ে এক কপিও পত্রিকাও না পেয়ে ফিরে যায়। অনেক পাঠক এক কপি পত্রিকা না পেলেও ”াঞ্চল্যকর দুর্ণীতির সংবাদটি পড়ার জন্য বাজারের বিভিন্ন ফটোকপি দোকানে গিয়ে সংবাদটির ফটোকপি সংগ্রহ করে। অনেককে আবার এ সংবাদটির শতশত ফটোকপি বিভিন্ন স্থানে বিতরণ করতেও দেখা যায়। ফলে এ সংবাদটি হয়ে উঠেছিলো ‘টক অব দ্যা টাউন’। অনলাইন পত্রিকা ‘সিরাজগঞ্জ কন্ঠ ডকটম’ এর সম্পাদক, নির্বাহী সম্পাদক, বার্তা সম্পাদক, সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদকসহ পত্রিকার সংশ্লিষ্ট সবাইকে, শাহজাদপুর থেকে প্রকাশিত অনলাইন পত্রিকা ‘শাহজাদপুর সংবাদ ডটকম’র এর প্রধান সম্পাদক, ব্যবস্থাপনা সম্পাদক, সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদকসহ পত্রিকার সংশ্লিষ্ট সবাইকে, দৈনিক যমুনা প্রবাহ ও দৈনিক যুগের কথা পত্রিকার শাহজাদপুরের অসংখ্য পাঠকসহ অনেকে স্বশরীরে আবার অনেকেই মোবাইল ফোনে স্থানীয় প্রতিনিধি মাধ্যমে দৈনিক যমুনা প্রবাহ ও দৈনিক যুগের কথা পত্রিকার সুযোগ্য সম্পাদক, নির্বাহী সম্পাদকসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ ও সাধুবাদ জ্ঞাপন করেন। বিশেষ করে এ ধরনের সাহসী, অনুসন্ধানী, প্রতিবাদী ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ করায় সংশ্লিষ্ট গণমাধ্যমগুলোর উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করে সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদককে বিশেষ ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন। সেইসাথে ভবিষ্যতেও এসব গণমাধ্যম সমাজের নানা দুর্ণীতি, অনিয়ম ও অসঙ্গতির বিরুদ্ধে এবং এলাকার সমস্যা, জনদুর্ভোগসহ জনমানুষের কল্যাণে বিভিন্ন প্রতিবেদন প্রকাশ করে দেশ ও দশের কল্যাণের স্বার্থে অবিচল থাকবে বলেও অসংখ্য পাঠক আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
উল্লেখ্য, শাহজাদপুর উপজেলার ৬নং পোরজনা ইউনিয়নের লোকাল গভর্ন্যান্স সাপোর্ট প্রজেক্ট (এলজিএসপি)-৩ এর ১ম ও ২য় কিস্তির কাজে ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। যার মধ্যে ‘জামিরতা ডিগ্রি কলেজের বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণ’ কাজের নামে ৪ লাখ ৫৯ হাজার টাকার প্রকল্প দেখিয়ে সেখানে ১ টাকারও কাজ না করে সম্পূর্ণ টাকা ভাগ-বাটোয়ারা করে নেন পোরজনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম মুকুল ও জামিরতা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ হায়দার আলী। ভাগ-বাটোয়ারার মধ্যে কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ হায়দার আলী মোটা অংকের টাকা উৎকোচ নিয়ে প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন হয়েছে মর্মে প্রত্যয়নপত্রও প্রদান করেন। যে কারণে, পোরজনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম মুকুল ও জামিরতা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ হায়দার আলীর বিরুদ্ধে দুর্ণীতির ওই সংবাদটি বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়।
যে ভূয়া প্রকল্প দেখিয়ে চেয়ারম্যান মুকুল ও অধ্যক্ষ ১ টাকারও কাজ না করে ৪ লাখ ৫৯ হাজার টাকা পুরোটাই দুইজন আত্মসাৎ করেছেন, সেই প্রদর্শিত ভূয়া প্রকল্পস্থলে ২০১৭ সালে কলেজের ৮ লাখ টাকা নিজস্ব অর্থায়নে বাউন্ডারি ওয়ালটি নির্মাণ করা হয়েছিলো। জামিরতা ডিগ্রি কলেজের ওই ওয়াল ২০১৭ সালে কলেজের ৮ লাখ টাকা ব্যয়ে সম্পন্নকৃত ওয়ালটি ফের ২০১৮ সালে অন্য একটি প্রকল্প কেবলমাত্র কাগজে-কলমে দেখিয়ে চেয়ারম্যান মুকুল ও অধ্যক্ষ হায়দার আলী কর্তৃক ৪ লাখ ৫৯ হাজার টাকা আত্মসাতের ঘটনা বিভিন্ন পত্রিকার প্রিন্ট ও অনলাইন ভার্সনে প্রকাশিত হওয়ায় পোরজনা, জামিরতাসহ পুরো উপজেলাবাসীর মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া পরিলক্ষিত হচ্ছে।