দুই মাস পর ব্যাট ধরলেন স্মিথ

গত ১৩ মার্চ সিডনিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটিতে শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। এরপর মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে স্থগিত হয়ে পড়ে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গন। ফলে আর মাঠে নামা হয়নি স্মিথের। অবশেষে সোমবার অনুশীলনে নামেন স্মিথ। দু’মাসের বেশি সময় পর ব্যাট ধরার স্বাদ নিলেন তিনি।

করোনাভাইরাসের কারনে দু’মাসের বেশি সময় ধরে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গন স্তব্ধ। তবে সম্প্রতি ইউরোপের কিছু-কিছু ফুটবল লিগ শুরু হলেও, কোথাও ব্যাট-বল হাতে লড়াইয়ে নামতে পারেননি ক্রিকেটাররা। তবে দ্রুত ক্রিকেট শুরুর স্বপ্ন নিয়ে অনুশীলন শুরু করেছে কিছু দল। যেমন- ইংল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সোমবার সেই তালিকায় নাম তুললো অস্ট্রেলিয়া জাতীয় ও ঘরোয়া কিছু ক্রিকেটার। অনুশীলন করেছেন কিছু খেলোয়াড়।

সোমবার অস্ট্রেলিয়ার রাজ্য ক্রিকেট দল নিউ সাউথ ওয়েলসের অনুশীলনে যোগ দিয়েছিলেন স্মিথ। জাতীয় দল সতীর্থ ডেভিড ওয়ার্নার ও মিচেল স্টার্ককে নিয়েই সিডনি অলিম্পিক পার্কে প্রাক মৌসুম অনুশীলন শুরু করেছেন স্মিথ। করোনাভাইরাসের কারনে দীর্ঘদিন পর আজই প্রথম আনুষ্ঠানিকভাবে অনুশীলন শুরু করলেন স্মিথ।

অনুশীলনে এসে অবাক করার গল্প শোনালেন স্মিথ। তিনি বলেন, ‘সত্যি বলছি, গত দু’মাস ধরে আমি ব্যাট স্পর্শও করে দেখিনি। বাড়িতে শারীরিক অনুশীলন করেছি। পরিস্থিতি অনুকূলে না থাকায়, আমি নিজ থেকেই ক্রিকেট থেকে দূরে থাকতে চেয়েছি। এত বড় ছুটির সুযোগ তো সহজে পাওয়া যায় না। নিজেকে শারীরিক ও মানসিকভাবে চাঙা রাখতে আমি সর্বাত্মক চেষ্টা করেছি। পরিবারকে সময় দিয়েছি। আনন্দঘন সময় পার করেছি।’

তবে অনলাইনে ভক্তদের টিপস দিতে মাঝে মধ্যে ক্রিকেট ব্যাট ধরেছেন বলে জানান স্মিথ, ‘ভক্তদের ব্যাটিং সর্ম্পকে কিছু প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে ও তাদের টিপস দেয়ার জন্য ব্যাট মাঝে মধ্যে ব্যাট ধরেছি। বাড়িতে থেকেই ভক্তদের অনলাইনে কিছু ক্লাস করিয়েছি। এ ছাড়া সত্যিই আমি ক্রিকেট ব্যাট ধরেনি। এটা অন্যরকম এক অভিজ্ঞতা। তবে আমি নিশ্চিত, যা হয়েছে ভবিষ্যতের জন্য ভালো হয়েছে। বিশ্বকাপ ও অ্যাশেজ মিলিয়ে লম্বা একটা বছর কাটানোর পর, সতেজ হওয়ার জন্য এমন বন্ধ দরকার ছিল।’

ঘরে গৃহবন্দি থাকায় অবস্থায় নিজেকে ফিট রাখতে শারীরিক কসরতটা বেশ ভালোভাবেই করেছেন বলে অকপটে স্বীকারও করে নিলেন স্মিথ। তিনি বলেন, ‘গত কয়েক বছরের মধ্যে আমি সম্ভবত এখনই শারীরিকভাবে সবচেয়ে ভালো অবস্থায় আছি। বাড়িতে প্রচুর দৌড়েছি, জিমে সময় দিয়েছি, কঠোর প্ররিশ্রম করেছি। দু’মাস ধরে কঠোর পরিশ্রমের ফল পাচ্ছি আমি। নিজেকে বেশ সতেজ ও ফিট মনে হচ্ছে।’

দীর্ঘদিন ধরে খেলার বাইরে থাকায়, মাঠে ফেরার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন স্মিথ। আগস্টের শেষে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজকে টার্গেট করেছেন তিনি। কারণ সম্প্রতি গ্রীষ্মকালীন সূচি ঘোষণা করেছে অস্ট্রেলিয়া। আগস্টে দেশের মাটিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ দিয়ে মাঠে ফেরার পরিকল্পনা অস্ট্রেলিয়ার।

তথ্যসূত্রঃ এবিএন

এখানে মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.