দুইবার গ্রেনেড হামলার শিকার, আজ হার মানলেন

বিএনপি-জামাত জোট সরকারের সময় বদরউদ্দিন আহমদ কামরানকে লক্ষ্য করে দুই দফা গ্রেনেড হামলা হয়েছিল। দুই দফাতেই অলৌকিকভাবে প্রাণে বেঁচে যান তিনি। অথচ আজ করোনাভাইরাসের কাছে হার মানলেন নির্ভীক এই রাজনীতিবিদ।

২০০১ সালে ২৬ দশমিক ৫০ বর্গকিলোমিটার আয়তন নিয়ে সিলেট সিটি করপোরেশন প্রতিষ্ঠিত হলে প্রথম মেয়র (ভারপ্রাপ্ত) হিসেবে ইতিহাসে নাম লেখান তৎকালীন পৌরসভার কমিশনার থেকে চেয়ারম্যান হওয়া কামরান। এরপর তার দল আওয়ামী লীগ বিরোধীদলে থাকতেই হয়েছিলেন সিলেটের নির্বাচিত মেয়র।

টেবিল টক, বক্তৃতা বা সমাজ হিতৈষী হিসেবে বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের যশ খ্যাতি ছড়িয়ে সিলেটের পরতে পরতে। কেবল রাজনীতির মাঠের পাকা খেলোয়াড়ই নন। সঙ্গীত ও খেলার জগতে ছিল তার মুন্সিয়ানা। ব্যাট হাতে যেমন বলকে মাঠের বাইরে পাঠিয়ে ঝলক দেখাতেন। তেমনি প্রিয় ফুটবল দল আর্জেন্টিনার লিওনেল মেসির জার্সি গায়ে মাঠে বলকে জালে জড়াতে দেখা যেতো তাকে। এক কথায় তিনি ছিলেন সিলেটের ‘ম্যাজিকম্যান’। সিলেটের বড় ধরনের কোনো সংকট মানেই হাল ধরতে হাজির বদর উদ্দিন আহমদ কামরান। তার উপস্থিতি মানেই সংকট নিরসন নিশ্চিত। মেয়র হিসেবে তো বটেই, নির্বাচনে পরাজিত হয়েও ছিলেন নগরবাসীর সুখ-দুঃখের সারথি। করোনা আক্রান্ত হয়ে তিনি যখন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন, মানুষ তখনও ভেবেছিল, ‘ম্যাজিকম্যান’ এই যুদ্ধে জয়ী হয়ে ফিরে আসবেন। কিন্তু শেষ বেলায় তিনি আর পারলেন না। দু দফা গ্রেনেড হামলায় বেঁচে গেলেও আজ তিনি হার মানলেন।

এখানে মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.