ডব্লিওএইচও’র সাথে সম্পর্কচ্ছেদের হুঁশিয়ারি ব্রাজিলের

যুক্তরাষ্ট্রের পদাঙ্ক অনুসরণ করে ডব্লিওএইচও’র সাথে সম্পর্কচ্ছেদের হুঁশিয়ারি দিলো ব্রাজিল। দেশটির প্রেসিডেন্টের দাবি, মহামারি মোকাবেলায় ব্যর্থ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এদিকে, ব্রাজিলের পর কোভিড নাইনটিনের হটস্পটে পরিণত হচ্ছে মেক্সিকো। মাত্র তিনদিনেই ২ হাজারের মতো মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন উত্তর আমেরিকার দেশটিতে।ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেইর বলসেনারো বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বরাদ্দ বন্ধের সাথেসাথেই অনেক দায়িত্বে অবহেলা করছে বিশ্ব স্বাস্খ্য সংস্থা। সম্প্রতি, ম্যালেরিয়ার ওষুধ নিয়ে যে ধোঁয়াশার সৃষ্টি হলো- এটা কাণ্ডজ্ঞানহীন আচরণের সবচেয়ে বড় উদাহরণ। যুক্তরাষ্ট্র সদস্যপদ প্রত্যাহার করে নিয়েছে। মতাদর্শিকভাবে ডব্লিওএইচও সুষ্ঠুভাবে কাজ না করলে ভবিষ্যতে এ ধরণের সিদ্ধান্ত গ্রহণের চিন্তা করছে ব্রাজিলও।

লাতিন দেশটির পরই কোভিড নাইনটিনের পরবর্তী হটস্পট ভাবা হচ্ছে মেক্সিকো’কে। গেলো তিনদিনে উত্তর আমেরিকার দেশটিতে কমপক্ষে ২ হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। গবেষকরা বলছেন, প্রকৃত সংখ্যা আড়াই গুণ বেশি।

মেক্সিকোর স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী হুগো লোপেজ রামিরেজ বলেন, জ্বর-কাশি-শরীরে ব্যথা অনুভুত হলে, দয়া করে বাড়িতে বসে থাকবেন না। দ্রুত করোনার নমুণা পরীক্ষা করান। হাসপাতালে দেরিতে পৌছানোর কারণেই অনেকে মৃত্যুবরণ করছেন। তারচেয়েও ভীতিকর বিষয় হলো- তথ্য গোপনের কারণে বাড়ছে সংক্রমণ।

কোভিড নাইনটিন বিস্তারে বিশ্বের তৃতীয় দেশ রাশিয়া। কিন্তু, গেলো সপ্তাহ থেকেই শিথিল করা হয়েছে লকডাউন। অর্থনীতিকে গতিতে ফেরাতে, ইউরোপের সাথে তাল মিলিয়েই সীমিত পরিসরে শুরু হয়েছে কর্মকাণ্ড। যাতে, দ্বিতীয় দফায় করোনা ছড়ানোর শঙ্কা বিশ্লেষকদের।

এখানে মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.