শাহজাদপুরে দুই সাংবাদিককে গুলি করে মেরে ফেরার হুমকি; থানায় জিডি


জনমনে প্রশ্ন, ‘বহু অপরাধের মূল হোতা বাবুলের খুঁটির জোর কোথায় ?

শাহজাদপুর সংবাদ ডটকম রিপোর্ট ঃ শাহজাদপুরের দুই সাংবাদিককে প্রকাশ্যে দিবালোকে দুই দফা গুলি করে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে র‌্যাব, ডিবি, পুলিশের কথিত সোর্স উপজেলার পোতাজিয়া ইউনিয়নের মাদলা গ্রামের নুরুল ইসলাম ফরাজীর ছেলে বাবুল (৪২)। এ ঘটনায় শাহজাদপুর থানায় একটি জিডি হয়েছে।
জিডি সূত্রে প্রকাশ, সম্প্রতি বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় ‘কে এই বাবুল’ শিরোনামে পরপর ৩টি অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে এলাকায় মাদক ব্যবসা, দেহ ব্যবসা করানো, প্রতারণাসহ নানা অপরাধের চিত্র জনসম্মুখে প্রকাশ পাওয়ায় উক্ত বাবুল আকতার ক্ষিপ্ত হয়ে গত ২৪ মার্চ বেলা ১টায় পৌর এলাকার রূপপুরে ও গত ৩০ মার্চ বেলা ২ টায় আন্ধারকোটাপাড়া মহল্লার জনৈক রাজার বাড়ির সামনে প্রকাশিত সংবাদের দুই প্রতিবেদক শাহজাদপুর প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি আবুল কাশেম এবং প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক শামছুর রহমান শিশিরকে প্রকাশ্য দিবালোকে হাত কেটে নেয়াসহ গুলি করে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এ ঘটনায় চরম উদ্বেগ প্রকাশ করে শাহজাদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি বিমল কুন্ডুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুজ্জামান শফির সঞ্চালনায় গতকাল মঙ্গলবার এক জরুরী বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠিত সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক ওই দুই সাংবাদিকের জীবনের নিরাপত্বা চেয়ে হুমকি দাতা র‌্যাব, ডিবি, পুলিশের কথিত সোর্স বাবুল আকতাদের বিরুদ্ধে থানায় একটি জিডি করেন সাংবাদিক আবুল কাশেম। সেইসাথে অনতিবিলম্বে হুমকি দাতা বহু অপকর্ম, অপরাধের মূল হোতা দালাল বাবুলকে গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানানো হয়। এ বিষয়ে শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আতাউর রহমান বলেন, ‘বিষয়টি তদন্তপূর্বক বাবুলের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’
উল্লেখ্য, র‌্যাব, ডিবি ও পুলিশের কথিত সোর্স পরিচয়ে ও মানব কল্যাণ সংস্থায় চাকুরি করার কথা বলে শাহজাদপুরে দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসা, নিরীহ লোকদের দোকানে মাদক রেখে টাকা আদায়, ডাকাতি করা, ইভটিজিং, জুয়া খেলা, সুদের কারবার, আশ্রিত নারীদের দিয়ে অবৈধ দেহ ব্যবসা করানো, মামলা তদবিরের নামে প্রতারণা করে টাকা আদায়, ইসলামী শরিয়াহ না মেনে প্রতারণা ও জালিয়াতির মাধ্যমে বহুবিবাহ করা, নিরীহ ব্যক্তিদের নানা কৌশলে ভয়ভীতি দেখিয়ে অর্থ আদায়, আশ্রিত যুবতী মেয়েদের দিয়ে কৌশলে এলাকার নিরীহ ব্যক্তিদের ফাঁদে ফেলে তাদের আটক করে মোটা অর্থ আদায়সহ বছরের পর বছর সীমাহীন অপকর্ম করে চলেছে শাহজাদপুর উপজেলার পোতাজিয়া ইউনিয়নের মাদলা গ্রামের নুরুল ইসলাম (নূরাল ফরাজী) এর ছেলে বাবুল। সর্বশেষ দুই সাংবাদিককে প্রাণনাশের হুমকি দেয়ায় স্থানীয় সাংবাদিক মহলসহ জনমনে প্রশ্ন জেগেছে,‘বহু অপরাধের হোতা দালাল বাবুলের খুঁটির জোর কোথায় ?