ছাত্রীকে ধর্ষণ ও অশ্লীল ছবি ধারণের অভিযোগে শিক্ষক আটক

নাটোরের বড়াইগ্রামে শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগে জুলফিকার সরকার (৫৫) নামের এক প্রাইভেট শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার বড়াইগ্রাম ইউনিয়নের খাকসা গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক শিক্ষক খাকসা গ্রামের মৃত মোজাহার সরকারের ছেলে।

বড়াইগ্রাম থানা সূত্রে জানা যায়, তিন বছর ধরে প্রাইভেট পড়ানোর কৌশলে মেয়েটির সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। এরপর ওই ছাত্রীকে একাধিক বার ধর্ষণ করে এবং মোবাইল ফোনে অশ্লীল ছবি ধারণ করে প্রাইভেট শিক্ষক জুলফিকার। সম্প্রতি অশ্লীল ছবিগুলো শিক্ষকের মোবাইলফোন থেকে সামাজিক যোগাযোক মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। পরে ছাত্রীর বাবা থানায় অভিযোগ করলে অভিযুক্তকে আটক করে।

নির্যাতিতা ছাত্রী বলে, আমাকে কৌশলে ফাঁদে ফেলে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করে এবং অশ্লীল ছবি মোবাইল ফোনে ধারন করে। পরে ওই ছবির ভয় দেখিয়ে একাধিক সময় আমার সাথে যৌন সম্পর্ক করে।

অভিযুক্ত শিক্ষক জুলফিকার বলেন, প্রায় দুই বছর যাবত সম্পর্ক গড়ে উঠে। উভয়ের ইচ্ছাতেই শারীরিক সম্পর্ক হয়। তবে তাকে বাধ্য করার বিষয়টি সঠিক নয়।

বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলিপ কুমার দাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযুক্ত শিক্ষকে আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

সূত্রঃ বিডি প্রতিদিন

এখানে মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.