ঘরের মাঠে চেলসিকে উড়িয়ে দিল শেফিল্ড

ঘরের মাঠে চেলসিকে উড়িয়ে দিল শেফিল্ড ইউনাইটেড। প্রতিপক্ষের মাঠে শেষ তিন ম্যাচে দ্বিতীয় হারে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের পথ কঠিন হয়ে গেল ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের দলের। ইউরোপ সেরার মঞ্চে যাওয়ার সম্ভাবনা উজ্জ্বল হলো লেস্টার সিটি ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের নিজেদের মাঠে শনিবার ৩-০ গোলে জিতেছে শেফিল্ড। প্রথমার্ধে দুই গোল করে চালকের আসনে বসে যাওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে স্বাগতিকরা করে আরেকটি গোল।

ম্যাচে প্রথমার্ধে চেলসির তিন শটের দুটি পোস্টে থাকলেও মেলেনি গোল। উল্টো ১৮ মিনিটে পিছিয়ে পড়ে তারা। একটি আক্রমণ চেলসি গোলরক্ষক ঠিক মতো ঠেকাতে ব্যর্থ হলে সুযোগ নেন ডেভিড ম্যাকগোল্ডরিক। অষ্টাদশ মিনিটে গোলমুখে থাকা এই ফরোয়ার্ড ফিরতি শটে অনায়াসে লক্ষ্যভেদ করেন।

৩৩তম মিনিটের গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে শেফিল্ড। বাম দিক থেকে এন্ডা স্টিভেন্সের দারুণ ক্রসে হেডে জাল খুঁজে নেন অলিভার ম্যাকব্রুইন।

দ্বিতীয়ার্ধে একের পর এক আক্রমণে শেফিল্ডের রক্ষণের পরীক্ষা নেয় সফরকারীরা। কিন্তু জালের দেখা পায়নি তারা। ৫০তম মিনিটে মিনিটে চেলসির মার্কোস আলোনসোর হেড লক্ষ্যে থাকেনি। এরপর ট্যামি আব্রাহাম, অলিভিয়ে জিরুদের প্রচেষ্টা ব্যর্থ হলে হতাশা বাড়ে দলটির।

৭২তম মিনিটে সেসার আসপিলিকুয়েতার শট প্রতিপক্ষের এক ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে দিক পাল্টে বাইরে দিয়ে বেরিয়ে যায়। একটু পর আব্রাহামের দুটি চেষ্টা লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ৭৭তম মিনিটে আরেক গোল হজম করলে চেলসির হার অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে যায়। টনি রুডিগারের বাড়ানো বল জালে পৌঁছে দেন ম্যাকগোল্ডরিক।

৩৫ ম্যাচে ৬০ পয়েন্ট নিয়ে এখনো তৃতীয় স্থানে আছে চেলসি। একটি করে ম্যাচ কম খেলা লেস্টার (৫৯) ও ইউনাইটেডের (৫৮) সামনে সুযোগ আছে ল্যাম্পার্ডের দলকে ছাড়িয়ে যাওয়ার। ৩৫ ম্যাচে ৫৪ পয়েন্ট নিয়ে ছয় নম্বরে উঠে এসেছে ইউরোপা লিগের বাছাই পর্বের খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখা শেফিল্ড। এক ম্যাচ কম খেলা ওলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স ৫২ পয়েন্ট নিয়ে নেমে গেছে সাতে।

 

এখানে মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.