কারাগারেই থাকতে হচ্ছে এমপি পাপুলকে

তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কুয়েতে গ্রেফতার বাংলাদেশের সংসদ সদস্য (এমপি) কাজী শহীদ ইসলাম পাপুলকে কারাগারে রাখার আদেশ দিয়েছেন দেশটির পাবলিক প্রসিকিউশন।

তার বিরুদ্ধে মানব ও অর্থ পাচার চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে কুয়েতের অপরাধ তদন্ত বিভাগ- সিআইডি।  এ বিষয়ে রবিবার তদন্ত শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।  খবর আরব টাইমসের।

জানা যায়, পাঁচ বাংলাদেশির স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে পাপুলের বিরুদ্ধে মানবপাচার, অর্থপাচার ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের শোষণের অভিযোগ এনেছে প্রসিকিউশন।

ওই ব্যক্তিরা প্রসিকিউশনকে জানিয়েছিল, তিন হাজার কুয়েতি দিনার খরচ করে পাপুলের মাধ্যমে সেদেশে গিয়েছে তারা। শুধু তাই নয়, ভিসা নবায়নের জন্য ফি বছর টাকা দিতে হয় তাদেরকে।

সাধারণ শ্রমিক হিসাবে কুয়েত গিয়ে বিশাল সাম্রাজ্য গড়া পাপুল ২০১৮ সালে লক্ষ্মীপুর-২ (রায়পুর) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। শুধু তাই নয় নিজের স্ত্রী সেলিনা ইসলামকেও সংরক্ষিত আসনে সংসদ সদস্য করে আনেন তিনি।

এখানে মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.