করোনা থেকে রক্ষা নাই, ভারতে এবার ‘ব্যানানা কোভিড’ হানার আশঙ্কা

করোনাভাইরাসের জেরে দেশে দেশে লকডাউন। একে তো সারা বিশ্বে সংক্রমণ ছড়িয়েছে আগুনের মতো। তার উপর আবার লকডাউনের জেরে মানুষের পেটে টান পড়ছে। উভয় সংকট। আর এই সংকট কবে কাটবে কেউ জানে না। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানাচ্ছে, করোনা এত সহজে যাবে না। মানবজাতিকে এই প্রাণঘাতী ভাইরাসকে সঙ্গে নিয়েই বাঁচতে শিখতে হবে। তবে কোভিড—১৯ এর তাণ্ডবে অতীষ্ঠ হয়ে উঠেছে মানব জীবন। আর তারই মধ্যে এবার ভারতে নতুন বিপদ। দেশটিতে এবার আরেক ভাইরাস ব্যানানা কোভিড(Banana Covid) হানার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

তবে এই ভাইরাস মানুষের শরীরে কোনও ক্ষতি করে না। কিন্তু ফসলের ব্যাপক ক্ষতি করে। বিঘার পর বিঘা জমি উজাড় হয়ে যেতে পারে। ব্যানানা কোভিড এক ধরণের ফাঙ্গাস। যার বৈজ্ঞানিক নাম ফ্যুজেরিয়াম বিল্ট টিআরফোর। নাম শুনেই বুঝতে পারছেন যে এই ভাইরাসের সঙ্গে কলার সরাসরি যোগাযোগ রয়েছে। কলা থেকেই অন্য ফসলে ছড়াতে শুরু করে এই ক্ষতিকর ভাইরাস। বিশ্বের সব থেকে বেশি কলা চাষ হয় ভারতে। ফলে ভারতে এই ভাইরাস ছড়ানোর সম্ভাবনা সব থেকে বেশি বলে মনে করছেন পরিবেশবিজ্ঞানীরা। তবে এখনও পর্যন্ত গোটা দেশে কোথাও ব্যানান কোভিড ছড়ানোর খবর পাওয়া যায়নি। তবে উত্তরপ্রদেশ ও বিহারের বিস্তীর্ণ এলাকায় এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ব্যানানা কোভিড ছড়াতে শুরু করলে তা রোধ করা কার্যত অসম্ভব হয়ে পড়ে। তাই ছড়ানোর আগেই সতর্কতা অবলম্বন করার চেষ্টা চলছে। মূলত তাইওয়ান থেকে ছড়াতে শুরু করেছিল এই ভাইরাস। এর পর মধ্য প্রাচ্যের একাধিক দেশে এই ভাইরাস ব্যাপক ক্ষতি করে। বিঘার পর বিঘা জমির ফসল এই ভাইরাসের জন্য নষ্ট হয়ে যায়। এমনকী আফ্রিকার একাধিক দেশেও ব্যানানা কোভিড—এর জন্য ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ইতিমধ্যে ভারতের একাধিক জায়গায় কীটনাশক ছড়ানোর কাজ শুরু হয়েছে। তবে তাতে এই ভাইরাস রোধে কতটা কাজ হবে তা নিয়ে সন্দেহ থেকে যাচ্ছে।

সূত্র : জি নিউজ।
সংবাদটি ভালো লাগলে অথবা গুরুত্ত্বপূর্ণ মনে হলে লাইক দিন।

এখানে মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.