সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪
জান্নাত আরা ঝর্না ও মুনিয়াদের চরিত্র হননকারী মামুনুল হক এবং সায়েম সোবহান আনভীরদের গোত্রকে আলাদা করে ভাববার কিছু নেই। উভয় ক্ষেত্রেই মুক্তিযোদ্ধা নামক শব্দটিকে কলঙ্কিত করার প্রচেষ্টা করা হয়েছে। (ঝর্না,মুনিয়া উভয়ের পিতা আসল নাকি নকল মুক্তিযোদ্ধা সেটিও বিবেচ্য বিষয় নয়)। ধরে নিলাম মেয়ে দুটি নষ্টা চরিত্রের। কিন্তু আপনারা পাক পবিত্র মানুষ হয়ে নষ্টাদের সাথে জড়ালেন কি ভাবে? আপনারই তাদের প্ররোচিত করেছিলেন নাকি তারাই আপনাদের প্ররোচিত করেছিল সেটি জানবার অবকাশ কি সাধারন মানুষের নেই? ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে খান সেনারা মুক্তিযোদ্ধা পরিবারগুলোর নারীদের গণিমতের মাল হিসেবে ব্যবহার করতো বিনা অর্থে জোর পূর্বক রাজাকার আলবদরদের সহায়তায়। এখন স্বাধীন দেশে আইন কাঠামোর মাঝে প্রলোভন দেখিয়ে তাঁদের মধ্যস্ততাকারী কিম্বা স্বয়ং নিজেরাই কেউ চুক্তিভিত্তিক,কেউ কাবিন ছারা বিবাহ, কেউ মুতা বিবাহ দেখিয়ে লুকিয়ে পর্দার অন্তরালে নারী ভোগ করছে অর্থের বিনিময়ে। এর দু'একটি ফাঁস হচ্ছে। বেশীরভাগ রয়েছে অন্ধকারে আঁড়ালে। এর জন্য নারীকে নারী সমাজকে আমরা দায়ী করছি পুরুষতান্ত্রিক চিন্তা চরিত্রের কারনে, পাশাপাশি তাদের হিজাব এ বোরকার আড়েলে রাখার চেষ্টা করছি । অনেক নারীও ভিকটম নারীর দোষগুন খুঁজতেই ব্যস্ত রয়েছেন। প্রকৃত দায় দািয়িত্ব নির্ধারন ও দোষীকে খুঁজে বের করার চেষ্টা করছেন না। কিম্বা নূন্যতম প্রতিবাদ জানাতেও সাহস পাচ্ছেন না। তাহলে কি ধরে নিতে পারি আমরা সেই একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের পর্বেই আমরা রয়ে গেছি। মাঝখানে আর্শীবাদ হিসেবে আমাদের ভাগ্যে জুটেছে স্বাধীনতা নামক শব্দ ও স্বতন্ত্র পতাকা। আমাদের চিন্তার জগত রাষ্ট্রের আইন কাঠামোর মাঝে কোন পরিবর্তন আসেনি। মুক্তিযুদ্ধের পর্বেও পাকিস্তানের আইন আদালত ছিল লুটেরা গণহত্যা, গণধর্ষণকারীদের পক্ষে। স্বাধীন দেশটাতেও অনুরুপ ও বদ অসামাজি কর্মকে আলাদা করে নির্ধারন করতে পারেনি রাষ্ট্র। বাস্তবতাই সেটি প্রমান করছে। তবে গুনগত পরিবর্তন হলো এই যে, তখন ছিল ভিনদেশী ভিন্ন ভাষার লুটেরা ধর্ষক। এখন স্বগোত্রীয় একই ভাষার মানুষ। রাষ্ট্র, আইন, মিডিয়া তাদেরই পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে। এ লজ্জা রাখি কোথায়?

সম্পর্কিত সংবাদ

আপাতত গরম কমছে না

জাতীয়

আপাতত গরম কমছে না

বুধবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল মোংলায়। দেশের মোট ১৬ জেলার ওপর দিয়ে তীব্র তা প্রবাহ বয...

দিনাজপুরে বাঁশের ফুল থেকে চাল, হচ্ছে ভাত-পোলাও

কৃষি

দিনাজপুরে বাঁশের ফুল থেকে চাল, হচ্ছে ভাত-পোলাও

ধান থেকে উৎপাদিত চালের মতো হুবহু এই বাঁশ ফুলের চাল। ভাত, পোলাও, আটা কিংবা পায়েস সব কিছু তৈরি হচ্ছে বাঁশ ফুলের চাল থেকে।...

মহানবী (সা.) এর পোশাক দেখতে ইস্তাম্বুলে হাজারো মানুষের ঢল

আন্তর্জাতিক

মহানবী (সা.) এর পোশাক দেখতে ইস্তাম্বুলে হাজারো মানুষের ঢল

খবরে বলা হয়, হযরত উওয়াইস আল-কারনি (রা.)-কে উপহার হিসেবে পোশাকটি দেন হযরত মুহাম্মদ (সা.)। তার বংশধররা এটি দীর্ঘ ১৪শ’ বছর...

শাহজাদপুরে অনুমোদন ছাড়াই চলছে গরু ছাগলের হাট

অপরাধ

শাহজাদপুরে অনুমোদন ছাড়াই চলছে গরু ছাগলের হাট

এ বিষয়ে শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ তরিকুল ইসলাম বলেন,'তারা একটি হাট বসাসোর জন্য অবেদন করলে তা ডিসি অফিসে পাঠান...

যেভাবে ইসতিসকার নামাজ আদায় করেছিলেন নবিজি (সা.)

ধর্ম

যেভাবে ইসতিসকার নামাজ আদায় করেছিলেন নবিজি (সা.)

ইসতিসকা শব্দের অর্থ পানি বা বৃষ্টি প্রার্থনা করা। সালাতুল ইসতিসকা অর্থ বৃষ্টি প্রার্থনার নামাজ। শারিয়তের পরিভাষায় অনাবৃষ...

শাহজাদপুরে প্রতারণা মামলায় আপন ভাই ও বোনের কারাদন্ড

শাহজাদপুর

শাহজাদপুরে প্রতারণা মামলায় আপন ভাই ও বোনের কারাদন্ড

সিরাজগঞ্জ শাহজাদপুরে চাচাতো বোনের দায়ের করা প্রতারণার মামলায় আপন ভাই বোনকে এক বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। গতসোমবার দুপ...