একসঙ্গে ২৫টি স্কুলে শিক্ষকতা করেন, বেতন ১ কোটি

ভারতের উত্তর প্রদেশের কস্তুরবা গাঁধী বালিকা বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা অনামিকা শুক্লা। রাজ্য সাধারণ শিক্ষা দপ্তরের অধীনে তিনি একই সঙ্গে ২৫টি স্কুলে শিক্ষকতা করেন! এতগুলো স্কুলের শিক্ষিকা হিসেবে গত এক বছরে তিনি বেতন পেয়েছেন প্রায় এক কোটি টাকা।

উত্তর প্রদেশের শিক্ষকদের জন্য ডিজিটাল ডাটাবেইস তৈরির সময় সামনে এসেছে এ ঘটনা। এর পরই ওই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে ওই রাজ্যের শিক্ষা দপ্তর।

অনামিকার বাড়ি মৈনপুরীতে। গত ফেব্রুয়ারিতে তাঁকে শেষবারের মতো দেখা যায় রায়বরেলীর একটি স্কুলে। এর পর থেকেই বেপাত্তা হয়েছেন অনামিকা। তাঁর কোন কোন ব্যাংক অ্যাকাউন্টে বেতনের টাকা জমা হতো, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। সেই টাকা অন্য কোনো অ্যাকাউন্টে সরিয়ে রাখা হতো কি না, তা-ও তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

স্কুল এডুকেশনের মহাপরিচালক বিজয় কিরণ আনন্দ বলেছেন, ‘বেপাত্তা ওই শিক্ষিকার ব্যাপারে বিস্তারিত জানতে তদন্ত করা হচ্ছে। প্রেরণা নামের অনলাইন পোর্টালের মাধ্যমে হাজিরা নিশ্চিত করতে হতো শিক্ষকদের। প্রযুক্তি এড়িয়ে কিভাবে তিনি এতগুলো স্কুলে হাজিরা দিতেন, তা-ও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।

এখানে মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.