ইরানে ‘ভালোবাসার অপরাধে’ মেয়ের শিরশ্ছেদ করলেন বাবা

ইরানে ভালোবাসার মানুষকে বিয়ের অপরাধে ১৪ বছর বয়সী মেয়েকে হত্যা করলেন বাবা।তেহরান থেকে ৩২১ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমের তালেশ শহরের ঘটনা এটি।২১ মে রমিনা আশরাফির শিরশ্ছেদ করেছে তার বাবা রেজা আশরাফি। এ ঘটনায় তোলপাড় চলছে গোটা ইরানজুড়ে।খবর গার্ডিয়ানের।৩৪ বছর বয়সী এক তরুণকে ভালোবাসতো রমিনা।পরিবার তাদের বিয়েতে রাজি হয়নি।মে মাসের মাঝামাঝি ভালোবাসার মানুষের সঙ্গে পালিয়ে যায় রমিনা। ৫ দিন পর তার সন্ধান মেলে।

পুলিশ রমিনাকে তার পরিবারের জিম্মায় দিয়ে দেয়;যদিও সে বারবার তাকে বাড়ি না পাঠানোর আকুতি জানায়।তার অনুরোধে সাড়া দেয়নি পুলিশ। ক্ষমা করে দেয়া হয়েছে এমন মিথ্যা প্রলোভনে রেজা আশরাফি রমিনাকে বাড়ি নিয়ে যান।

২১ মে রমিনা তার কক্ষে ঘুমাচ্ছিলেন। এ সময় তার বাবা একটি কাস্তে নিয়ে ঘরে ঢুকে আঘাত করে তার মাথা দেহ থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে।এ ঘটনায় ঘাতক বাবা অপরাধ স্বীকার করেছে এবং পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে।

তথ্যসূত্রঃ এবিএন

এখানে মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.