অর্থ-বাণিজ্যদিনের বিশেষ নিউজ

আরো ৩ হাজার কোটি টাকা ঋণ পাচ্ছেন গার্মেন্টস মালিকরা

করোনায় সৃষ্টি হওয়া সংকট কাটানোর লক্ষ্যে বিশেষ তহবিল থেকে আরো তিন হাজার কোটি টাকা ঋণ দেয়া হচ্ছে গার্মেন্টসহ রপ্তানিমুখী শিল্প প্রতিষ্ঠানের মালিকদের।

শ্রমিক-কর্মচারীদের জুলাই মাসের বেতন ভাতা পরিশোধের জন্য এ ঋণ দেয়া হচ্ছে তাদের। তবে জুনে যেসব উদ্যোক্তা ঋণ পেয়েছিলেন, কেবল তারাই এই ঋণ পাবেন। নতুন করে আর কাউকে এই ঋণ দেয়া হবে না। বৃহস্পতিবার সংশ্লিষ্ট বাণিজ্যিক ব্যাংককে এ সংক্রান্ত চিঠি দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

চিঠিতে বলা হয়েছে, শেষবারের মতো চলতি মাসের মজুরি দিতে তহবিল থেকে ঋণ পাবেন গার্মেন্টসহ রপ্তানিমুখী শিল্প প্রতিষ্ঠানের মালিকরা। গত জুনে যেসব উদ্যোক্তা ঋণ পেয়েছিলেন, তার বাইরে নতুন কেউ পাবেন না। ওই ঋণের বিপরীতে প্রথম তিন মাসের সার্ভিস চার্জ ২ শতাংশ। চলতি মাসের ক্ষেত্রে অবশ্য সেটি হবে সাড়ে ৪ শতাংশ। এক্ষেত্রে সরকার সাড়ে ৪ শতাংশ ভর্তুকি দেবে।

এর আগে, শ্রমিক-কর্মচারীদের বেতন ভাতা দেয়ার জন্য ৫ হাজার কোটি টাকার বিশেষ তহবিল থেকে ৮০ শতাংশ পণ্য রপ্তানি করছে এমন প্রতিষ্ঠানকে সর্বোচ্চ ২ শতাংশ হারে সার্ভিস চার্জ দিয়ে ঋণ দেয়া হয়। ইতিমধ্যে এ তহবিল থেকে ঋণ নিয়ে গত এপ্রিল, মে ও জুন- এই তিন মাসের বেতন দিয়েছে অনেক রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান।

করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়ায় আরো তিন মাস শ্রমিক-কর্মচারীদের বেতন ভাতা দেয়ার জন্য সরকারের কাছে বিশেষ তহবিল থেকে ঋণ চেয়ে আবেদন করেন গার্মেন্টস মালিকরা। এর প্রেক্ষিতে একমাস অর্থাৎ চলতি মাসের বেতন-ভাতা দেয়ার জন্য তাদের আরও তিন হাজার কোটি টাকা দেয়া হচ্ছে।

ফলে করোনার ক্ষত কাটিয়ে উঠতে ক্ষতিগ্রস্ত শিল্প ও সেবা খাতের প্রতিষ্ঠানের জন্য ঘোষিত ৩০ হাজার কোটি টাকার বিশেষ তহবিল বাড়িয়ে ৩৩ হাজার কোটি টাকা করা হলো।

একই বিভাগের সংবাদ

Back to top button
x
Close
Close
%d bloggers like this: